বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রঞ্জু প্রামাণিককে (৪০) কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। আজ রোববার বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে শহরের ফুলতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল মান্নান প্রথম আলোকে বলেন, ‘আধিপত্য বিস্তার ও পূর্বশত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের হাতে রঞ্জু খুন হয়েছেন। তিনি উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলে পুলিশ খোঁজ নিয়ে জেনেছে।’

নিহত ব্যক্তির ছোট ভাই ঝন্টু প্রামাণিক জানান, আজ বিকেল পাঁচটার দিকে বাড়ির অদূরে গোহাইল সড়কের আমেরিকা বোডিংয়ের পেছনে দাঁড়িয়ে ছিলেন রঞ্জু। তিনি দাবি করেন, এ সময় শাকপালা এলাকার একটি চিহ্নিত সন্ত্রাসী দলের সদস্যরা মোটরসাইকেলযোগে এসে রঞ্জুর ওপর হামলা করে। কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই তারা রামদা দিয়ে রঞ্জুর মাথায় এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। মৃত্যু নিশ্চিত করার পর কয়েকটি ফাঁকা গুলি ছুড়ে সন্ত্রাসীরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে নেয়।
যুবলীগের নেতা রঞ্জু প্রামাণিক ফুলতলা এলাকার মৃত শুকুর আলী প্রামাণিকের ছেলে। উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ২৫ মে রঞ্জু প্রামাণিকের বড় ভাই ও জেলা যুবলীগের সদস্য মজনু মিয়া এবং ভাতিজা যুবলীগের কর্মী নাহিদ হাসানও খুন হয়েছিলেন। পরে পুলিশের তদন্তে বেরিয়ে আসে জায়গা দখল, টাকা ভাগ-বাঁটোয়ারা নিয়ে বিরোধের জের ধরে দলীয় প্রতিপক্ষের হাতেই এ খুনের ঘটনা ঘটেছে। ওই খুনের মামলাটি বর্তমানে আদালতে বিচারাধীন। ওই ঘটনার দেড় বছরের মাথায় রঞ্জু প্রামাণিকও খুন হলেন।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন