বগুড়ায় আবারও পণ্যবাহী দুটি ট্রাকে পেট্রলবোমা হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। পেট্রলবোমার আগুনে চারজন দগ্ধ হয়েছেন। আজ সোমবার বিকেলে সদরের মহাস্থানগড় ও শাজাহানপুর উপজেলার বেতগাড়ি এলাকায় পৃথক এ ঘটনা ঘটে।

দগ্ধ ব্যক্তিরা হলেন ট্রাক দুটির চালক আবদুল কাদের ও ওবায়দুর রহমান এবং তাঁদের সহকারী লিটন কাজী ও মঞ্জু মিয়া। তাঁদের বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এর আগে আজ সকালে বগুড়া শহরের ঠনঠনিয়া কোচ টার্মিনাল এলাকায় ককটেল ফাটিয়ে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা বাবলু পরিবহনের একটি কোচে পেট্রলবোমা হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। এতে কেউ হতাহত হয়নি।
শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল মান্নান প্রথম আলোকে জানান, দিনাজপুরের ফুলবাড়ী থেকে কয়লা নিয়ে ঢাকায় যাওয়ার পথে রাত সোয়া আটটার দিকে শাজাহানপুর উপজেলার বেতগাড়ী এলাকায় ওত পেতে থাকা দুর্বৃত্তরা পেট্রলবোমা হামলা করে। এতে ট্রাকটিতে আগুন ধরে গেলে ট্রাকের চালক আবদুল কাদের ও তাঁর সহাকারী লিটন কাজী দগ্ধ হন। তাঁদের শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।
সদরের মহাস্থানগড় এলাকার কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, নাশকতার মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া একজনকে পরিবহন শ্রমিক দাবি করে মহাস্থান বন্দরের মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সদস্যরা আজ বিকেলে মহাস্থান হল-বন্দর এলাকায় মহাসড়ক অবরোধ করেন। এ সময় মহাসড়কের আটকে পড়া মাছবাহী একটি ট্রাকে পেট্রলবোমা ছোড়ে দুর্বৃত্তরা। এতে ট্রাকে আগুন ধরে গেলে ট্রাকের চালক ওবায়দুর রহমান ও তাঁর সহকারী মঞ্জু মিয়া দগ্ধ হন। তাঁদেরও শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে আগুন নেভান।
বগুড়া সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নুর-এ-আলম সিদ্দিকী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন