বাসায় ঢুকে গৃহকর্তাকে হত্যা, স্বর্ণালংকার লুট

বিজ্ঞাপন
default-image

গাজীপুরে একদল সশস্ত্র লোক একটি বাড়িতে ঢুকে গৃহকর্তাকে হত্যা করে স্বর্ণালংকার লুট করে পালিয়ে গেছে। স্থানীয় লোকজন এটাকে ডাকাতি বললেও পুলিশের ধারণা, এটা ডাকাতির ছলে পরিকল্পিত হত্যা। গতকাল সোমবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের দক্ষিণ সালনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তি হলেন দক্ষিণ সালনা এলাকার মৃত আগর আলীর ছেলে আবদুর রউফ (৬০)। তিনি স্থানীয় মসজিদ কমিটির সভাপতি ছিলেন এবং কৃষিকাজ করতেন।

পরিবার ও এলাকাবাসী জানান, গাজীপুরের দক্ষিণ সালনা এলাকায় আবদুর রউফের বাড়িতে একদল ডাকাত দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হানা দেয়। এ সময় কলাপসিবল গেটের তালা ও দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে ডাকাতেরা। তারা বাড়ির কয়েকজনকে বেঁধে ফেলে। ডাকাতদের কাজে বাধা দিলে তারা আবদুর রউফকে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। স্বামীকে বাঁচানোর চেষ্টা করতে গেলে মাজেদা বেগমকে কুপিয়ে জখম করে ডাকাতেরা। পরে স্বর্ণালংকার লুট করে পালিয়ে যায়।
পরিবারের লোকজনের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে আহত মাজেদা বেগমকে উদ্ধার করে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নিয়ে ভর্তি করেন। খবর পেয়ে রাতেই পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ওই হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

এ ব্যাপারে গাজীপুর মেট্রোপলিটন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এজাজ সফি জানান, আবদুর রউফ এলাকার মাতব্বর ছিলেন। ধারণা করা যাচ্ছে, এটা ডাকাতির ঘটনা নয়। পূর্বশত্রুতার জের ধরে দুর্বৃত্তরা তাঁকে শ্বাস রোধ করে হত্যা করেছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন