বাড়া ভাতে চুল পেয়ে স্ত্রীর মাথা ন্যাড়া করলেন স্বামী

বিজ্ঞাপন
default-image

গাজীপুরের শ্রীপুরে ভাতের প্লেটে চুল পেয়ে এক স্বামী তাঁর স্ত্রীর মাথা ন্যাড়া করে দিয়েছেন অভিযোগে মামলা হয়েছে। ওই নারী তাঁর করা মামলায় স্বামী ও শাশুড়িসহ চারজনকে আসামি করেছেন। গতকাল সোমবার পুলিশ একজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে ওই নারী বলেন, তিনি স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। তাঁর স্বামী গত কয়েক বছর ধরে যৌতুকের জন্য তাঁকে প্রায়ই মারধর করেন। বাবার বাড়ি থেকে ২ লাখ টাকা যৌতুক এনে দেওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছিলেন। শ্বশুরবাড়ির কয়েকজন তাঁর স্বামীকে এ ব্যাপারে প্ররোচনা দিতেন। ৯ ফেব্রুয়ারি স্বামী তাঁর পাতের খাবারে চুল দেখতে পেয়ে চিৎকার-চেঁচামেচি করেন। কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে দা দিয়ে তাঁর মাথার কিছু চুল কেটে দেন। পরে ব্লেড দিয়ে মাথা ন্যাড়া করে দেন। এ সময় তাঁর স্বামীকে সহায়তা করেন তাঁর শাশুড়ি। নির্যাতনের পর বাবার বাড়িতে চলে যাওয়ার চেষ্টা করলে শ্বশুরবাড়ির অন্য লোকজন তাঁকে বাধা দেন। ১২ ফেব্রুয়ারি তিনি তাঁর সন্তানসহ বাবার বাড়িতে চলে যান। পরে ওই দিনই তিনি শ্রীপুর থানায় স্বামীসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

এই চারজন হলেন ওই নারীর স্বামী সায়েম আহমেদ, শাশুড়ি জাহানারা বেগম, মামা শ্বশুর আতাবুর রহমান ও হাবিবুর রহমান। তাদের মধ্যে আতাবুরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এ ব্যাপারে ওই নারীর শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) এখলাছ উদ্দিন বলেন, একজকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেপ্তার করার চেষ্টা চলছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন