নারায়ণগঞ্জে ও মানিকগঞ্জে দুজনকে খুন করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার তাঁদের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এর আগে বৃহস্পতিবার গাজীপুরে সংঘর্ষে এক তরুণ নিহত হন। একই দিন কেরানীগঞ্জে এক গৃহবধূকে হত্যা করা হয়।
প্রথম আলোর প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর:
নারায়ণগঞ্জ: পারিবারিক কলহের জের ধরে বাবুল মিয়া (৪৫) নামের এক ব্যক্তি খুন হন। গতকাল সকালে শহরের নতুন জীমখানা এলাকার একটি বাসা থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনায় তাঁর স্ত্রী রিনা বেগম (৩৫), ছেলে শাওন (২০)ও রিনা বেগমের ভাইয়ের স্ত্রী পাখি বেগমকে (৪০) গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
নিহত বাবুল কুমিল্লার মৃত কালা চান মিয়ার ছেলে। তিনি ট্রাকের চালক ছিলেন। নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার এসআই বিল্লাল হোসেন বলেন, সম্প্রতি বাবুল গ্রামের বাড়িতে জমি বিক্রি করেন। ওই টাকা নিয়ে স্ত্রী-সন্তানের সঙ্গে বৃহস্পতিবার রাতের কোনো একসময় তাঁদের ঝগড়া হয়। এর জের ধরে বাবুলের মাথায় ভারী কোনো বস্তু দিয়ে আঘাত করা হয়। পরে বালিশচাপা দিয়ে শ্বাসরোধে তাঁকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।
মানিকগঞ্জ: সিঙ্গাইর থানার পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, গতকাল ভোরে হেমায়েতপুর-সিঙ্গাইর সড়কের ভূমদক্ষিণ এলাকায় একটি ইটভাটার কাছে রক্তাক্ত অবস্থায় অজ্ঞাতনামা (৩৫) এক যুবকের লাশ পড়ে থাকতে দেখেন কৃষিশ্রমিকেরা। লাশের পরনে ছিল গাঢ় নীল ট্রাউজার ও সাদা জ্যাকেট। খবর পেয়ে সকাল নয়টার দিকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ। থানার এসআই এম এ হক বলেন, নিহত ব্যক্তির বুকে ও পিঠে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ময়নাতদন্তকারী এক চিকিৎসক বলেন, ওই যুবকের লাশের বুকের দুই পাশে ও ঘাড়ের ওপরে গুলি করা হয়েছে।
গাজীপুর: গাজীপুরের শ্রীপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে বাচ্চু মিয়া (২৮) এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার উপজেলার জাহাঙ্গীরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, জাহাঙ্গীরপুর গ্রামের তাইজ উদ্দিন ও আন্নাছ মিয়ার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে একটি জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। বৃহস্পতিবার বিকেলে তাইজ উদ্দিন ১০-১২ জন সহযোগী নিয়ে ওই জমিতে কাঁটাতারের বেড়া দিতে যান। খবর পেয়ে আন্নাছ মিয়া ও তাঁর লোকজন এতে বাধা দেন। একপর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় আন্নাছ মিয়ার বড় ভাই এজাহার (৫০), ছোট ভাই ইসলাম উদ্দিন (৩৮) ও বাচ্চু মিয়া (২৮), তাঁদের ভাতিজা রিপন মিয়া (২৫) ও সবুজ মিয়াসহ (২২) ছয়জন আহত হন। পরে লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে বাচ্চু মিয়াকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়।
কেরানীগঞ্জ (ঢাকা): কেরানীগঞ্জে শাহনাজ বেগম (২৪) নামে এক গৃহবধূকে কুপিয়ে খুন করেছেন তাঁর স্বামী। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাত আটটার দিকে শাহানাজ বেগম ও তাঁর স্বামী আজিজুর রহমানের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে আজিজ রান্নাঘর থেকে বঁটি এনে শাহনাজকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন। রাত ১০টার দিকে প্রতিবেশীরা তাঁকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় আজিজুরকে আসামি করে নিহত ব্যক্তির চাচা মোশারফ হোসেন কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় মামলা করেছেন। আজিজকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন