default-image

নোয়াখালীর প্রধান বাণিজ্যকেন্দ্র বেগমগঞ্জের চৌমুহনীর একটি ব্যক্তি মালিকানা গুদামে অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে পাচার করা ৩০ মেট্রিক টন সরকারি গম জব্দ করেছেন জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) জেলা কার্যালয়ের কর্মকর্তারা। গুদামটি সিলগালা করা হয়েছে।

একই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানটির পরিচালকের ছেলে মো. মাসুমকে (৩২) আটক করা হয়েছে। তিনি চৌমুহনী ব্যবসায়ী সমিতির নেতা। গতকাল রোববার রাত ১০টার দিকে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

এনএসআই নোয়াখালী জেলা কার্যালয় সূত্র জানায়, গোপন সংবাদে জেলা কার্যালয়ের ডিডি এ বি এম ফারুকের নেতৃত্বে সংস্থার একটি দল চৌমুহনীর দক্ষিণ বাজারের ব্যবসায়ী হাজী আবদুল মালেকের গুদামে ঝটিকা অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে গুদামের ভেতরে ও সামনে থাকা একটি ট্রাকে তল্লাশি চালিয়ে খাদ্য অধিদপ্তরের সিলযুক্ত ৩০ মেট্রিক টন সরকারি গম পাওয়া যায়। বৈধ কোনো কাগজপত্র দেখাতে না পারায় গম জব্দ করা হয় এবং প্রতিষ্ঠানের পরিচালকের ছেলে মাসুমকে আটক করা হয়। তাঁকে বেগমগঞ্জ থানা-পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে।

অভিযানে সহযোগিতা করেন বেগমগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. সারোয়ার কামাল ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন-উর-রশিদ চৌধুরী। অংশ নেন এনএসআইর জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ফয়সাল মিয়া, জুনিয়র মাঠ কর্মকর্তা আবু তাহের নিজামী ও সিরাজুল ইসলাম।

অভিযানের পরিচালনার বিষয়টি নিশ্চিত করে এনএসআই'র নোয়াখালী কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ফয়সাল মিয়া জানান, এ ব্যাপারে থানায় মামলা দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন