default-image

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলায় বড় ভাইয়ের হাতে ছোট ভাই খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে উপজেলার সরোজগঞ্জ-শাহাপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত ওই ছোট ভাইয়ের নাম সুজন আলী (২৮)। নিহত সুজন ও খুনের ঘটনায় অভিযুক্ত আবদুল কাদের শাহাপুর গ্রামের আবদুল হাকিমের ছেলে।

পরিবার ও পুলিশ জানায়, জাল ভিসায় ছোট ভাই সুজন আলীকে বিদেশ পাঠানোর ঘটনায় বড় ভাই আবদুল কাদেরের সঙ্গে বিরোধ চলছিল। সেই বিরোধের জেরে কাদের তাঁর ছোট ভাই সুজনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করে পালিয়ে যান। এ ঘটনার পর কাদেরকে ধরতে সদর থানা ও সরোজগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা যৌথ অভিযান শুরু করেছেন।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হোসেন খান প্রথম আলোকে বলেন, আবদুল কাদের জাল ভিসায় ছোট ভাই সুজন আলীকে বিদেশে পাঠিয়েছিলেন। সুজন বহু কষ্টে সম্প্রতি দেশে ফিরে আসেন। জাল ভিসায় বিদেশ পাঠানোর ঘটনায় রাতে দুই ভাইয়ের মধ্যে ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে বড় ভাই কাদের ধারালো অস্ত্র দিয়ে ছোট ভাই সুজনকে এলোপাতাড়ি কোপান। গুরুতর আহত অবস্থায় সুজনকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে তিনি মারা যান।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক আওলিয়ার রহমান বলেন, ধারালো অস্ত্র দিয়ে সুজনের ডান হাত ও মাথার কয়েকটি স্থানে এলোপাতাড়ি কোপানোর চিহ্ন আছে। হাসপাতালে আনার আগেই তিনি মারা যান।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন