অপহরণের ২০ দিন পর উদ্ধার হলো আট বছরের শিশু রকিবুল ইসলাম। ৪ ফেব্রুয়ারি তার খালা তাকে বেড়াতে নিয়ে গিয়ে অপহরণ করেন এবং পরে মুক্তিপণ দাবি করেন। আজ মঙ্গলবার বিকেলে মাগুরার শালিখা উপজেলার আড়পাড়া বাসস্ট্যান্ড থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়।

শিশুটির বাবা রফিকুল ইসলাম জানান, প্রায় এক দশক আগে তিনি বিয়ে করেন। তাঁদের একমাত্র সন্তান রকিবুল আলোকদিয়া এ মজিদ একাডেমির দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র। ৪ ফেব্রুয়ারি সকালে তাঁদের বাড়িতে বেড়াতে আসেন তাঁর শ্যালিকা চায়না খাতুন। বিকেল চারটার দিকে ভাগনে রকিবুলকে নিয়ে আলোকদিয়া থেকে মঘি গ্রামের বাড়ি যাওয়ার কথা বলে রওনা দেন চায়না। কিন্তু আর বাড়ি ফেরেননি।
ঘটনার দুদিন পর চায়না মোবাইলে তাঁর কাছে (রফিকুল) রকিবুলের মুক্তিপণ হিসেবে ১০ লাখ টাকা দাবি করেন। ওই টাকা না দিলে রকিবুলকে হত্যারও হুমকি দেন।
ওই ঘটনায় ৯ ফেব্রুয়ারি চায়না খাতুনকে আসামি করে রফিকুল ইসলাম মাগুরা সদর থানায় মামলা করেন। পুলিশ আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে চায়নার অবস্থান শনাক্ত করে শিশুটিকে অক্ষত অবস্থায় ফেরত দিতে চাপ সৃষ্টি করে। পরে আজ বিকেল সাড়ে চারটার দিকে রকিবুলকে আড়পাড়া বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়।

মাগুরা সদর থানার উপপরিদর্শক মোহসিন উদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, দুই সপ্তাহ চেষ্টা চালিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে চায়না খাতুনকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। যেহেতু শিশুটি অপহরণ হওয়ার ঘটনায় থানায় মামলা রয়েছে, তাই তাকে তার মা–বাবার কাছে এই মুহূর্তে ফেরত দেওয়া যাচ্ছে না। আগামীকাল (বুধবার) তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন