পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলায় মো. আমির গাজী নামের এক ব্যক্তি খুন হয়েছেন। গতকাল শনিবার রাতে উপজেলার উত্তর তেলিখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আমিরের পরিবারের অভিযোগ জমি-সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের লোকজন তাঁকে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় আমিরের স্ত্রী আয়েশা বেগম বাদী হয়ে আজ রোববার মামলা করেছেন। মামলায় ১৬ জনকে আসামি করা হয়েছে।

পুলিশ ও নিহত আমিরের পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, উপজেলার তেলিখালী গ্রামের আমির গাজীর সঙ্গে প্রতিবেশী আবদুর রব মাতুব্বরের দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। গতকাল রাতে আমির গাজী স্থানীয় মাদারশি বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। রাত সাড়ে নয়টার দিকে বাড়ির সামনে পৌঁছালে দুর্বৃত্তরা তাঁকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এ সময় আমির গাজীর চিৎকার শুনে পরিবারের লোকজন এসে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পিরোজপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

আমির গাজীর ছেলে কবির গাজী বলেন, ‘জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে আমার বাবাকে প্রতিবেশী আবদুর রব মাতুব্বর ও তার লোকেরা হত্যা করেছে। এ সময় তাঁর (আমির গাজী) সঙ্গে থাকা টাকাও নিয়ে যায় তারা।’ এ ঘটনায় করা মামলায় আবদুর রবকে ৩ নম্বর অাসামি করা হয়েছে।

ভান্ডারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আবু যাহিদ জানান, আবদুর রব মাতুব্বরের ছেলে সোহাগ মাতুব্বরকে আটক করা হয়েছে। মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন