এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলায় নারায়ণপুর পপুলার উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রের সচিব এবং দাখিল পরীক্ষার ঘিলাতলী মাদ্রাসা কেন্দ্রের সচিবকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। গত শনিবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অব্যাহতির লিখিত আদেশ দেন।
অব্যাহতি পাওয়া ব্যক্তিরা হলেন নারায়ণপুর পপুলার উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হারুনুর রশিদ এবং ঘিলাতলী মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আবুল বাশার।
এর আগে এসএসসির ইংরেজি দ্বিতীয় পত্র এবং দাখিলের আরবি দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা চলার সময় ওই দুই কেন্দ্রসচিবের বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলা এবং পরীক্ষার্থীদের নকলে উৎসাহিত করার অভিযোগ আনে উপজেলা প্রশাসন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারহানা ইসলাম বলেন, কেন্দ্রে নকল বন্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ সত্ত্বেও তাঁরা যথাযথ দায়িত্ব পালন করেননি। বরং প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে পরীক্ষার্থীদের নকলে সহযোগিতা করেছেন। এ জন্য তাঁদের বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া নারায়ণপুর উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুর রহিম ও ঘিলাতলী মাদ্রাসা কেন্দ্রে উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা স্বপন চন্দ্র বর্মণকে নতুন সচিবের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।
অভিযোগের ব্যাপারে হারুনুর রশিদ ও আবুল বাশারের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাঁরা ফোন ধরেননি।
প্রসঙ্গত, গত শনিবারের এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষায় ওই দুই কেন্দ্রে নকলের অভিযোগে সাত পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন