মাঠে স্ত্রীর রক্তাক্ত লাশ, পাশের গাছে ঝুলছিল স্বামীর লাশ

বিজ্ঞাপন
default-image

সাতক্ষীরার শ্যামনগরে এক দম্পতির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মাঠে স্ত্রীর রক্তাক্ত লাশের পাশেই গাছে ঝুলছিল স্বামীর লাশ।

গতকাল শনিবার রাতের কোনো একসময়ে উপজেলার মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের জেলেখালিতে এই ঘটনা ঘটে। আজ রোববার সকালে তাঁদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত দম্পতি হলেন মান্নান গাজী (৪৭) ও তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রী সোনা বিবি (৪০)।

মান্নান গাজীর শ্যালক মোস্তফা আল মামুন জানান, তাঁর ভগ্নিপতি সুন্দরবনের নদ-নদীতে কাঁকড়া শিকার করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। তিনি কয়েক বছর ধরে উপজেলার রমজাননগর ইউনিয়নের কালিঞ্চি গ্রামে বসবাস করতেন। কয়েক দিন আগে দ্বিতীয় স্ত্রী সোনা বিবিকে সঙ্গে নিয়ে তাঁর পৈতৃক বাড়ি জেলেখালিতে আসেন। আজ সকালে স্থানীয় লোকজন বাড়ির পাশের ঈদগাহ মাঠে সোনা বিবির লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। আর পাশেই গাছে ঝুলছিল মান্নান গাজীর লাশ। সোনা বিবির গলায়, হাতে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের কোপের জখম রয়েছে। লাশের পাশে পড়ে ছিল একটি কুড়াল।

একই কথা বলেন মান্নান গাজীর মেয়ের শ্বশুর আবাদচণ্ডীপুর গ্রামের আবদুর ছাত্তার গাজী।

কী কারণে এ ঘটনা ঘটেছে, তা স্বজনেরা বলতে পারেননি। দুজনকেই হত্যা করা হয়েছে, নাকি স্ত্রীকে হত্যার পর মান্নান আত্মহত্যা করেছেন, তা নিয়ে সংশয়ে সবাই।

মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আবদুল জলিল বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, সোনা বিবিকে হত্যা করে তাঁর স্বামী মান্নান গাজী আত্মহত্যা করেছেন। তবে কী কারণে এ ঘটনা ঘটেছে, তা নিশ্চিতভাবে বলা যাচ্ছে না।

ঘটনাস্থল থেকে শ্যামনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইয়াসিন আলম চৌধুরী জানান, সোনা বিবিকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। মান্নান গাজী আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তদন্ত শেষ নিশ্চিত করে বলা যাবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন