মাদক বিক্রিতে বাধা দেওয়ায় ব্যবসায়ীকে কোপানোর অভিযোগ

বিজ্ঞাপন
default-image

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে মাদক বিক্রিতে বাধা দেওয়ায় আবদুর রউফ নামের এক ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আজ বৃহস্পতিবার থানায় মামলা হয়েছে।

গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার সোনাপুর এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে। মূল অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম ইকবাল হোসেন। তাঁকেসহ কয়েকজন অজ্ঞাতপরিচয় আসামির বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে এ মামলা করেন আহত ব্যক্তির ছোট ভাই সুলতান মিয়া। 


এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের সোনাপুর এলাকার বাসিন্দা ও থানা-পুলিশের তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী ইকবাল হোসেন দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছেন। তাঁর এ ধরনের ব্যবসা বন্ধ করার জন্য ওই এলাকার মাদকবিরোধী প্রতিরোধ কমিটির সদস্য আবদুর রউফসহ এলাকাবাসী দীর্ঘদিন ধরে বাধা দিয়ে আসছেন। এ নিয়ে কয়েক মাস ধরে ইকবাল হোসেনের সঙ্গে আবদুর রউফের দ্বন্দ্ব চলছিল। দ্বন্দ্বের জের ধরে গতকাল সন্ধ্যায় একা পেয়ে ইকবাল হোসেনের নেতৃত্বে তাঁর সহযোগীরা আবদুর রউফকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ও পিটিয়ে পালিয়ে যায়। পরে আশপাশের লোকজন আবদুর রউফকে প্রথমে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ইকবাল হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমি মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত নই। এলাকার কিছু লোক থানা-পুলিশকে ভুল বুঝিয়ে পুলিশের তালিকায় মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে আমার নাম নথিভুক্ত করেছে। এ ছাড়া ভুল বোঝাবুঝির কারণে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আবদুর রউফের ওপর কিছু যুবক হামলা করেছে। এ ঘটনার সঙ্গে আমি জড়িত নই।’

সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, ইকবাল হোসেন থানা-পুলিশের তালিকাভুক্ত একজন মাদক ব্যবসায়ী। তাঁর নামে একাধিক মামলা রয়েছে। তাঁকে ও তাঁর সহযোগীদের গ্রেপ্তার করতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান শুরু হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন