সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় মামলা দায়েরের জের ধরে প্রতিপক্ষের লোকজন বাদীর বাড়িতে আগুন দিয়ে তিনটি বসতঘর পুড়িয়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ পাঁচজন আহত হয়েছেন।
উপজেলার আশারকান্দি ইউনিয়নের কাঠালখাইড় পশ্চিম পাড়া গ্রামে গতকাল বুধবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, কাঠালখাইড় গ্রামের মাহির উল্লা ও আবদুস সামাদের মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। গত সোমবার রাতে আবদুস সামাদের লোকজন মাহির উল্লার পুকুর থেকে জোরপূর্বক মাছ ধরে নিয়ে যান। এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার মাহির উল্লা বাদী হয়ে জগন্নাথপুর থানায় মামলা করেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে প্রতিপক্ষের লোকজন গতকাল বুধবার দুপুর ১২টার দিকে মাহির উল্লার বাড়িতে লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা চালান এবং বসতঘরে আগুন দেন। এতে তাঁদের টিনের তৈরি তিনটি ঘর পুড়ে যায়। এ সময় প্রতিপক্ষের হামলায় মাহির উল্লার স্ত্রী জুলেখা বিবি (৭০), মেয়ে রুনা বেগমসহ (২৬), আলেয়া বেগম (৩৫), মুক্তার মিয়া (৭), সালমান (৫) আহত হন। তাঁদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
মাহির উল্লার ছেলে আজিদ আলী জানান, মামলা করায় আবদুস সামাদের লোকজন তাঁদের বাড়িতে পেট্রল ঢেলে আগুন দিয়েছেন।
জগন্নাথপুর থানার এসআই মিজানুর রহমান বলেন, ‘পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। মামলা দায়েরের জের ধরেই প্রতিপক্ষের লোকজন প্রকাশ্যে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। আবদুস সামাদ ও তার লোকজন গা-ঢাকা দিয়েছে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন