মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলায় আজ বৃহস্পতিবার যাত্রীবাহী একটি বাসে আগুন দিয়েছে সন্দেহভাজন অবরোধ-সমর্থকেরা। এতে কোনো যাত্রীর হতাহত হওয়ার তথ্য জানা যায়নি। 
বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোটের চলমান অবরোধ ও হরতালের মধ্যে সকালে উপজেলার দাসেরবাজার এলাকায় ঢাকাগামী ওই যাত্রীবাহী বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভান।
পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও প্রত্যক্ষদর্শী একাধিক ব্যক্তির ভাষ্য, রূপসী বাংলা পরিবহনের বাসটি সকাল পৌনে আটটার দিকে সিলেটের বিয়ানীবাজার থেকে ১০-১৫ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেয়। সকাল সোয়া আটটার দিকে বাসটি বড়লেখার দাসেরবাজার এলাকায় পৌঁছায়। এ সময় ২০-২৫ জন যুবক পথরোধ করে বাসটি থামায়। একপর্যায়ে তারা ‘অবরোধ, অবরোধ’ বলে স্লোগান দিয়ে কয়েকটি প্লাস্টিকের বোতলে আনা পেট্রল বাসের বাইরের দিকে ছিটিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ দৃশ্য দেখে বাসের চালক ও যাত্রীরা আতঙ্কিত হয়ে দ্রুত নেমে যান। আগুন দেওয়ার পর ওই যুবকেরা কয়েকটি মোটরসাইকেলে করে দ্রুত পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে সকাল পৌনে নয়টার দিকে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট।
ঘটনাস্থল থেকে বড়লেখা থানার দ্বিতীয় কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) কাজী জিয়াউদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, কোনো যাত্রী হতাহত হয়েছেন কি না, তা এখনো জানা যায়নি। আগুনে বাসটির বেশির ভাগ অংশ পুড়ে গেছে। অবরোধ ও হরতাল-সমর্থকেরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের শনাক্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন