default-image

যশোরের মনিরামপুর উপজেলায় র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' এক তরুণ নিহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে উপজেলার মশ্মিমনগর ইউনিয়নের রামপুর এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। 

নিহত তরুণের নাম রুবেল হোসেন ওরফে শাওন (২২)। তিনি যশোরের অভয়নগর উপজেলার বুইকারা গ্রামের বাচ্চু হাওলাদারের ছেলে।
পুলিশের দাবি, নিহত রুবেল হোসেন একজন মাদক ব্যবসায়ী। ঘটনাস্থল থেকে র‍্যাব একটি একটি বিদেশি পিস্তল, এক রাউন্ড গুলি ও ৬৪ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করেছে।
মনিরামপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শিকদার মতিয়ার রহমান জানান, গতকাল দিবাগত রাতে একদল মাদক ব্যবসায়ী মনিরামপুর উপজেলার মশ্মিমনগর ইউনিয়নের রামপুর এলাকায় মাদক বেচাকেনা করছিলেন। এ সময় র‍্যাব-৬ খুলনার একটি দল মশ্মিমনগর ইউনিয়নে টহলরত ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাবের টহলরত দলটি রাত সাড়ে তিনটার দিকে মাদক ব্যবসায়ীদের ধরতে সেখানে অভিযান চালায়।
তিনি জানান, র‍্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ী দলটি তাদের লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ শুরু করে। আত্মরক্ষার্থে এ সময় র‍্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি ছোড়েন। একপর্যায়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পিছু হটলে ঘটনাস্থলে মাদক ব্যবসায়ী রুবেল হোসেনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। তাঁকে উদ্ধার করে মনিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এরপর ময়নাতদন্তের জন্য তাঁর লাশ যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।
শিকদার মতিয়ার আরও জানান, র‍্যাব এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, এক রাউন্ড গুলি ও ৬৪ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করেছে। তিনি বলেন, রুবেল হোসেন অভয়নগর উপজেলার একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তাঁর বিরুদ্ধে অভয়নগর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ১০টি মামলা রয়েছে। এ ঘটনায় মনিরামপুর থানায় তিনটি মামলার প্রস্তুতি চলছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0