ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া প্রথম আলোকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

আহত নিরাপত্তাকর্মী মুজিবুর রহমানের ছেলে মশিউর রহমান বলেন, তাঁর বাবা সোমবার দিবাগত রাতে বুথে দায়িত্ব পালন করছিলেন। ওই সময় এক যুবক এসে প্রথমে তাঁর বাবার মাথায় হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করে। পরে পেটে ছুরি মেরে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ওই যুবককে আটক করেছে। তবে ওই যুবক বুথের কোনো টাকা নিতে পারেনি বলে জানান তিনি।

আজ মঙ্গলবার ভোরে মুজিবুরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
এদিকে ছুরিকাহত আবু বক্কর সিদ্দিকের ভাতিজা আহসান হাবিব প্রথম আলোকে বলেন, তাঁর চাচা সোমবার রাতে মোহাম্মদপুরের বছিলায় সূচনা মডেল সিটির একটি নির্মাণাধীন ভবনে নিরাপত্তাকর্মী হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন। রাতে ভবনের নিচে বসে মুঠোফোনে ভিডিও দেখছিলেন তিনি। হঠাৎ এক যুবক (২৪) তাঁর হাত থেকে মুঠোফোনটি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় দুজনের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়।

একপর্যায়ে ওই যুবক তাঁর পেটে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়।
আবু বক্করকে প্রথমে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল থেকে মধ্যরাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ভর্তি করা হয়।

অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন