লাকসামে ডাকাতিয়া নদীতে নারীর লাশ

বিজ্ঞাপন
default-image

কুমিল্লার লাকসাম উপজেলায় ডাকাতিয়া নদী থেকে অজ্ঞাতনামা এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। লাশটি ট্রেন থেকে ১১ আগস্ট নদীতে পড়ে যাওয়া এক নারীর বলে ধারণা করছেন এলাকাবাসী।

পশ্চিমগাঁও এলাকার অন্তত তিন ব্যক্তি বলেন, আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে লাকসামের পশ্চিমগাঁওয়ে ডাকাতিয়া নদীর একটি অংশে কচুরিপানা তুলছিলেন এক কৃষক। এই সময় তিনি দেখতে পান, নদীর মধ্যে এক নারীর লাশ ভাসছে। পরে তিনি আশপাশের লোকজনকে বিষয়টি জানান। এরপর দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

স্থানীয় লোকজনের ধারণা, লাশটি চাঁদপুর থেকে চট্টগ্রামগামী আন্তনগর মেঘনা এক্সপ্রেস ট্রেন থেকে পড়ে যাওয়া এক নারীর। ১১ আগস্ট চাঁদপুর থেকে চট্টগ্রামগামী আন্তনগর মেঘনা এক্সপ্রেস ট্রেন লাকসাম-চাঁদপুর রেললাইনের পশ্চিমগাঁও এলাকায় ডাকাতিয়া নদীর ওপর রেলসেতু দিয়ে অতিক্রম করছিল। এ সময় এক অজ্ঞাতনামা নারী ট্রেন থেকে নদীতে পড়ে যান। পরে ফায়ার সার্ভিস ও ডুবুরি দল অনেক চেষ্টা চালিয়েও ওই অজ্ঞাতনামা নারীর লাশ উদ্ধার করতে পারেনি। এটি ওই নারীর লাশ হতে পারে।

মরদেহ উদ্ধার করতে আসা লাকসাম থানার উপপরিদর্শক আবু নাছের বলেন, ৪৫ বছর বয়সী ওই নারীর মাথা ও হাতে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। লাশটি উদ্ধার করে হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে লাকসাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন বলেন, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর জানা যাবে, এটি হত্যা না দুর্ঘটনা। লাশের পরিচয় এখনো শনাক্ত হয়নি। লাশটি নদীতে ভেসে ছিল।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন