লোহাগড়ায় চাল আত্মসাতের অভিযোগে ডিলার গ্রেপ্তার

বিজ্ঞাপন

নড়াইলের লোহাগড়ায় খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির আওতায় ১০ টাকার চাল কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগে এক ডিলার গ্রেপ্তার হয়েছেন। গতকাল রোববার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে লোহাগড়া থানা-পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে।

অভিযুক্ত ডিলার আশরাফ আলী (৪০) জয়পুর ইউনিয়নের আড়িয়ারা গ্রামের বাসিন্দা। তিনি ওই ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সাবেক সদস্য। ওই ইউনিয়নের মরণ মোড়ে তিনি এ চাল বিক্রি করতেন।

লোহাগড়া থানা-পুলিশ সূত্র জানায়, ১৬ এপ্রিল সন্ধ্যায় ওই ডিলারের কাছ থেকে ১০ টাকা দরের ৫০ কেজি চাল ৩০ টাকা কেজি দরে কিনে নেন বাবরা গ্রামের ভ্যানচালক শহীদ খা। শহীদ খা সে চাল আড়পাড়া গ্রামের জবদুল জমাদ্দার ও রজিবর শেখের কাছে বিক্রি করেন। খবর পেয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাখি ব্যানার্জি ঘটনাস্থলে যান। চাল ক্রেতারা বিষয়টি স্বীকার করেন। তখন তিনি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে শহীদ খাকে তিন মাসের কারাদণ্ড দেন এবং জবদুল জমাদ্দার ও রজিবর শেখকে আড়াই হাজার টাকা করে জরিমানা করেন। তখন ডিলার আশরাফ সেখান থেকে পালিয়ে যান।

ওই রাতেই লোহাগড়া থানার এসআই জয়নুল আবেদিন বাদী হয়ে ডিলার আশরাফের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে থানায় মামলা করেন। ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা থানার দ্বিতীয় কর্মকর্তা এসআই মিলটন কুমার দেবদাস। মিলটন কুমার দেবদাস বলেন, ‘মামলা হওয়ার পর থেকে আশরাফ পালাতক ছিলেন। রোববার রাতে তাঁর বাড়ি থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। আজ সোমবার দুপুরে তাঁকে আদালতে পাঠানো হবে।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন