লোহাগড়ায় ছেলের হাতুড়িপেটায় মায়ের মৃত্যু

বিজ্ঞাপন
default-image

নড়াইলের লোহাগড়ায় ছেলের হাতুড়িপেটায় মায়ের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে তিনটার দিকে উপজেলার মল্লিকপুর ইউনিয়নের মঙ্গলহাটা মধ্যপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত ওই ছেলের নাম সাব্বির (১৯)। তিনি মানসিক রোগী বলে স্বজনেরা দাবি করেছেন।

নিহত ওই মায়ের নাম আসমা বেগম (৪৫)। তিনি ওই গ্রামের আবদুর রাজ্জাক মোল্লার স্ত্রী। রাজ্জাক মোল্লা পেশায় নির্মাণশ্রমিক। নিহত আসমা গৃহিণী ছিলেন। আসমার তিন ছেলে ও এক মেয়ে। বড় ছেলে দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র। ছোট ছেলে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ে। মেয়ের বয়স চার বছর।

পরিবার, স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্র জানায়, ঘরের মধ্যে পারিবারিক কলহের একপর্যায়ে মেজ ছেলে সাব্বির ক্ষুব্ধ হয়ে তাঁর মা আসমা বেগমের মাথায় হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করেন। এতে তাঁর মাথা ফেটে যায়। তিনি অচেতন হয়ে পড়েন। এ সময় সাব্বিরের বড় ভাই কাইয়ুম ও আশপাশের লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

স্বজনেরা জানান, সাব্বির এসএসসি পাস করার পর দুই বছর ধরে মানসিক রোগী। ঘটনার সময়ে ঘরে অন্য কেউ ছিল কি না, তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন তাঁরা।

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান বলেন, সাব্বিরকে ধরার চেষ্টা চলছে। তাঁকে আটক করা গেলে এ ঘটনার কারণ জানা যাবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন