ট্রেন আসবে বলে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে রেলক্রসিংয়ের গেট। এক পাশে থেমে আছে পাঁচটি ট্রাক। এমন সময় সংকেত অমান্য করে রেললাইনের দিকে এগিয়ে যায় টমেটোবাহী একটি ট্রাক। ওপারে পৌঁছানোর আগেই ট্রেনের ধাক্কায় দুমড়ে-মুচড়ে যায় সেটি।
গত শনিবার গভীর রাতে রাজশাহী নগরের বহরমপুর রেলক্রসিং এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে আহত হয়ে ট্রাকের সহকারী শাকিল বর্তমানে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আর ট্রাকচালক পলাতক।
প্রত্যক্ষদর্শী নূর ইসলাম নামে এক ট্রাকচালক জানান, তিনি বহরমপুর রেলক্রসিংয়ে এসে দেখতে পান ট্রেন আসবে বলে রেলক্রসিংয়ের এক পাশের গেট নামিয়ে দেওয়া। তিনি সেখানে থাকা দুটি লেনের মধ্যে বাঁ পাশের লেনটিতে ট্রাক থামিয়ে সেখানে অপেক্ষা করতে থাকেন। এ সময় তাঁর পেছনে আরও চারটি ট্রাক অপেক্ষা করছিল। এমন সময় দেখতে পান হঠাৎ একটি টমেটোবাহী ট্রাক ডান দিকের লেন দিয়ে তাঁদের পাশ কাটিয়ে রেললাইনের দিকে যাচ্ছে। তিনি ট্রাকচালককে বারবার থামার জন্য বলেন। কিন্তু ওই চালক কথা না শুনে ট্রাকটি উঠিয়ে দেন রেললাইনের ওপর। তিনি বলেন, ‘ওই চালকের এমন কাজ দেখে দুর্ঘটনার আশঙ্কায় আমরা ট্রাক পেছনে সরিয়ে নিতে থাকি। ততক্ষণে ট্রেনটি এসে ওই ট্রাককে ধাক্কা দেয়।’
গেটম্যান রাকিব জানান, দুর্ঘটনার পরই ট্রাকের কাছে গিয়ে তাঁরা আর চালককে খুঁজে পাননি। ট্রাকের সহকারী শাকিলকে আহত হয়ে পড়ে থাকতে দেখেন। তাঁকে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাঁর বাড়ি নাটোর জেলায়। রাকিব আরও বলেন, ‘ট্রাকটি টমেটো নিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জের বহরমপুর থেকে ঢাকা যাচ্ছিল বলে শুনেছি।’
গতকাল রোববার সকালে ওই রেলক্রসিংয়ে গিয়ে দেখা যায়, চারদিকে টমেটো ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে। আশপাশের শিশুরা সেখান থেকে বেছে বেছে ভালো টমেটো কুড়িয়ে নিচ্ছে। পাশে পড়ে আছে ভাঙা ট্রাকটি।
রাজশাহী জিআরপি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকবর আলী জানান, এ ঘটনায় গতকাল বিকেল পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন