পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় সড়কের পাশে পৌরসভার অনুমতি না নিয়ে গড়ে তোলা হয়েছে কয়েকটি কসাইখানা। ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের সামনে কসাইখানা করায় সেখানে পরিবেশদূষণ হচ্ছে। এ ব্যাপারে পৌরসভায় লিখিত অভিযোগ দিলেও তারা কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
গতকাল সোমবার সরেজমিনে দেখা গেছে, মঠবাড়িয়া পৌরসভার হাইস্কুল এলাকায় রাস্তার দুই পাশে পাঁচটি কসাইখানা রয়েছে। সড়কের পাশে অবস্থিত ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের সামনে খোলা জায়গায় মাচা তৈরি করে সেখানে প্রতিদিন গরু-ছাগলের মাংস বিক্রি করা হচ্ছে। সড়কের ধূলিকণা উড়ে গিয়ে এসব কসাইখানায় মাংসের ওপর পড়ছে। আবার কসাইখানার বর্জ্য সড়কের পাশে ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের সামনে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে পড়ে রয়েছে।
স্থানীয় বাসিন্দা হালিমা বেগম বলেন, ‘পশুর বর্জ্য বাসার আশপাশে ফেলায় দুর্গন্ধে ঘরে থাকা যায় না। এ ঘটনায় দেড় বছর আগে পৌরসভায় লিখিত অভিযোগ করেছি। কিন্তু পৌরসভা কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।’
ব্যবসায়ী গোলাম মোস্তফা অভিযোগ করেন, তাঁর দোকানের সামনে জোর করে মো. নিজাম নামের এক মাংস ব্যবসায়ী কসাইখানা খুলে বসেন। ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের সামনে সড়কের পাশে কসাইখানা গড়ে তোলায় তাঁরা পৌরসভাসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেছেন। কিন্তু কোনো ফল মিলছে না। নিজাম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘সড়কের পাশে খালি জায়গায় মাচা তুলে আমি মাংস বিক্রি করছি।’
মঠবাড়িয়া পৌরসভার স্বাস্থ্য পরিদর্শক রামকৃষ্ণ সাহা জানান, তাঁরা লিখিত অভিযোগ পেয়েছেন। কসাইখানা বন্ধে মাংস ব্যবসায়ীদের চিঠি দেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন