default-image

রাজশাহীতে মূল সড়ক বন্ধ করে নৌপরিবহনমন্ত্রীর বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে নগরের শিরোইল বাস টার্মিনালের পাশের সড়কের ওপর সমাবেশের মঞ্চও তৈরি করা হয়েছে। রাজশাহীর পরিবহন মালিক ও শ্রমিকেরা এ কারণে যান চলাচলও বন্ধ রেখেছেন।

আজ বুধবার বেলা তিনটায় পেট্রলবোমায় নিহত, আহত ও পরিবহনে জ্বালাও-পোড়াও—এসব ঘটনার প্রতিবাদে রাজশাহী বিভাগীয় বাস-ট্রাক মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের পক্ষ থেকে এই বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান। সভাপতিত্ব করবেন রাজশাহী সড়ক পরিবহন গ্রুপের সভাপতি এনামুল হক। স্থানীয় সরকার, পল্লি উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান ও রাজশাহীর সাবেক মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামানেরও সমাবেশে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। 

ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা গেছে, সমাবেশ উপলক্ষে নগরের শিরোইল বাস টার্মিনালের পাশে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-নাটোর সড়কের ওপরে বিশাল মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে। আজ সকাল থেকে ওই সড়কে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। শ্রমিক ইউনিয়নের সদস্যরা লাঠি ও বাঁশি নিয়ে ওই সড়কে ঢুকে পড়া যানবাহন অন্য রাস্তায় ফিরিয়ে দিচ্ছেন।

default-image

সড়ক বন্ধ করে সমাবেশ করার ব্যাপারে জানতে চাইলে মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সড়ক সম্পাদক মোহাম্মদ আদিল বলেন, টার্মিনালের পাশেই তাঁদের সারা দিন কাজ করতে হয়। তাঁদের সমাবেশের জন্য এর চেয়ে উপযুক্ত জায়গা আর নেই। পাশ দিয়ে আরও সড়ক থাকায় জনগণের খুব অসুবিধা হবে না। যান চলাচল বন্ধের ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘সমাবেশে অংশ নেওয়ার জন্য শুধু রাজশাহীর মালিক ও শ্রমিকেরাই কাজ বন্ধ করেছেন। তাঁরা কাজে গেলে তো আর সমাবেশ করতে পারবেন না। এ জন্য রাজশাহীর গাড়ি বন্ধ রাখা হয়েছে। বাইরের মালিক ও শ্রমিকদের গাড়ি তো চলছে।’

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন