নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে একটি হত্যা মামলার সাক্ষীর ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে আসামিপক্ষ তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের তিনতেড়িবাজারে এ ঘটনা ঘটে।
মমতাজ ডেকোরেটরের মালিক সোনাপুর ইউনিয়নের হীরাপুর গ্রামের নূর নবী জানান, গত বছরের ১ আগস্ট তাঁর ভাতিজা স্কুলছাত্র সোহরাব হোসেন ওরফে পিয়াস নিখোঁজ হয়। পরদিন তার ক্ষত-বিক্ষত লাশ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় তাঁর বড় ভাই নুরুল ইসলাম একই এলাকার নূর নবীসহ অজ্ঞাতনামা ছয়-সাতজনকে আসামি করে মামলা করেন। এরপর ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ সাইফুল ইসলাম ও সাদ্দাম হোসেন নামের দুজনকে গ্রেপ্তার করে। কয়েক দিন আগে এ দুজন জামিনে মুক্তি পান।
নূর নবীর অভিযোগ, বুধবার সন্ধ্যায় সাইফুল ও সাদ্দামের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী তিনতেড়িবাজারে এসে তাঁর ডেকোরেটর দোকান থেকে কর্মচারীদের বের করে দিয়ে তালা ঝুলিয়ে দেয়। তাঁর অভিযোগ, গত ৯ ডিসেম্বর মামলার আসামিরা তাঁর বড় ভাই নুরুল আমিনকে পিটিয়ে আহত করে।
অভিযোগ সম্পর্কে বক্তব্য জানতে চেষ্টা করেও আসামিদের কাউকে পাওয়া যায়নি।
সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফ-উল ইসলাম জানান, নূর নবীকে লিখিত অভিযোগ দেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন