default-image

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় আরও একজন বুয়েট ছাত্র আজ সোমবার আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন। তাঁর নাম সাখাওয়াত ইকবাল ওরফে অভি। তিনি ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স বিভাগের ছাত্র।

সাখাওয়াত ইকবাল আদালতকে বলেছেন, গত বছরের ৬ অক্টোবর রাত আটটার দিকে ১৬তম ব্যাচের ছাত্র মনিরুজ্জামান (আসামি) ফেসবুক মেসেঞ্জারে স্ট্যাটাস দিয়ে নিচে নামতে বলেন। এরপর তিনি হলের নিচতলায় ক্যানটিনের সামনে আসেন। সেখানে দেখা হয় এহতেশামুল রাব্বি, মুনতাসির আল জেমি, নাজমুস সাদাত ও হোসাইন মোহাম্মদ তোহার সঙ্গে। পরে এহতেশামুল তাঁকে হলের নিচতলায় ১০১১ (আবরার যে কক্ষে থাকতেন) নম্বর কক্ষে যেতে বলেন। এহতেশামুল আবরার ফাহাদকে ঘুম থেকে ডেকে তোলেন। পরে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় ২০১১ নম্বর কক্ষে। তিনিও পরে ওই কক্ষে গিয়েছিলেন। তাঁর সামনে আবরার ফাহাদকে মারধর করা হয়। ক্রিকেট স্ট্যাম্প দিয়ে ১৫তম ব্যাচের ছাত্র অনিক সরকার, ইফতি মোশাররফ আবরার ফাহাদকে মারধর করেন।

বিজ্ঞাপন

গতকাল রোববার এই হত্যা মামলায় বুয়েট ছাত্র মুহতাদি আহনাফ আনসারী ও মোহাম্মদ গালিব আদালতে সাক্ষ্য দেন। এ হত্যা মামলায় গত বছরের ১৩ নভেম্বর বুয়েটের ২৫ ছাত্রের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। গত ২১ জানুয়ারি অভিযোগপত্রটি আমলে নেন আদালত। তিন আসামি পলাতক।

গত ২ সেপ্টেম্বর বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় বুয়েটের ২৫ ছাত্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

আজ সাখাওয়াত ইকবালের সাক্ষ্য গ্রহণের মধ্য দিয়ে মামলার ২৩ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষ হয়েছে।আগামীকাল মঙ্গলবার মামলার সাক্ষ্য গ্রহণের পরবর্তী তারিখ ঠিক করেছেন ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১–এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামান।

মন্তব্য পড়ুন 0