সারিয়াকান্দিতে দুই পক্ষের বিরোধের হামলায় নিহত ১

বিজ্ঞাপন
default-image

বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলায় আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় এক পক্ষের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে শহিদুল ইসলাম আকন্দ (৪০) নামে একজন কৃষক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন দুজন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে সারিয়াকান্দি উপজেলার কর্নিবাড়ি ইউনিয়নের যমুনা নদীর দুর্গম শনপচার চরে এই ঘটনা ঘটে।

শনপচার চরের বাসিন্দাদের ভাষ‍্যমতে, কর্নিবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আজাহার আলীর সঙ্গে আট বিঘা জমি নিয়ে বিরোধ ছিল ১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল আকন্দ ও ইলিয়াস মোল্লার। বিরোধপূর্ণ ওই জমি দখলে নেন চেয়ারম্যানের লোকজন। এ নিয়ে ইলিয়াস মোল্লাদের পক্ষ নেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি সদস্য আনিসুর রহমান। অন্যদিকে চেয়ারম্যানের পক্ষ নেন দলের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি খায়রুল ইসলাম।

আয়েন উদ্দিন নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা বলেন, জমিজমা নিয়ে বিরোধ ছাড়াও সপ্তাহখানেক আগে সালিসে কথাকাটাকাটি হয় দুই পক্ষের। এসবের জেরে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শনপচার বাজারে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি খায়রুল ইসলামের নেতৃত্বে সাধারণ সম্পাদক আশরাফুলসহ তাঁর লোকজনের ওপর হামলা করা হয়। একপর্যায়ে বাজারের পাশে তিনটি বাড়িতে হামলাকারীরা চড়াও হয়। এ সময় ধারালো ফলার আঘাতে নিহত হন আশরাফুলের চাচাতো ভাই শহিদুল।

সারিয়াকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) মোহাম্মদ আল আমিন বলেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধারের জন্য দুর্গম ওই চরে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। সকালের মধ্যে লাশ উদ্ধার করে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন