সীতাকুণ্ডে প্রতিবন্ধী গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

বিজ্ঞাপন
default-image

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড পৌর সদরের প্রেমতলা এলাকা থেকে প্রতিবন্ধী গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে।

ওই গৃহবধূর নাম মিতু রানী নাথ (২১)। মিতু মিরসরাই উপজেলার জোরারগঞ্জ থানাধীন ধুম ইউনিয়নের জহরলাল নাথের মেয়ে। ময়নাতদন্তের জন্য মিতুর লাশ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

মিতুর পরিবারের সদস্যরা জানান, সাত মাস আগে মিতুর সঙ্গে সীতাকুণ্ড পৌর সদরের প্রেমতলা এলাকার বাসিন্দা মন্টু নাথের ছেলে সজল নাথের (২৫) বিয়ে হয়। সজল ও মিতু দুজনই প্রতিবন্ধী। বিয়ের পর থেকে ওই দুই পরিবারের মধ্যে কোনো বিরোধ ছিল না।

জহরলাল নাথ বলেন, শ্বশুরবাড়ি থেকে মুঠোফোনে সোমবার সন্ধ্যার একটু আগে জানানো হয় মিতু অসুস্থ। এর কিছুক্ষণ পর জানানো হয় মিতু মারা গেছে। পরে শ্বশুরবাড়ির লোকজন তড়িঘড়ি করে লাশটি সৎকারের চেষ্টা চালান। এরপর বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়।

সীতাকুণ্ড থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাইফুল ইসলাম বলেন, পুলিশের জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯–এ ফোন করে মিতুর লাশটি পুড়িয়ে ফেলার অভিযোগ করে তাঁর পরিবার। এরপর দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন