পূর্ব সুন্দরবনের কটকা এলাকা-সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে একটি মাছ ধরা ট্রলারসহ দুই জেলেকে অপহরণ করেছে জলদস্যুরা। এ সময় দস্যুদের পিটুনিতে তিন জেলে আহত হন। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।
দস্যুদের কবল থেকে ফিরে আসা জেলে বলেন, তাঁরা শুক্রবার সন্ধ্যায় পাঘরঘাটা উপজেলার পদ্মা গ্রামের আবদুল হালিমের মালিকানাধীন এফবি হালিম নামে ওই ট্রলার নিয়ে সুন্দরবনের কটকা-সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরছিলেন। এ সময় ১৫-১৬ জনের একটি সশস্ত্র জলদস্যু দল বড় একটি ট্রলারে করে এসে তাঁদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় দস্যুদের পিটুনিতে রুবেল, হায়দার ও বেলাল নামের তিন জেলে আহত হন। আহত তিন জেলেকে পাশের একটি চরে নামিয়ে ট্রলারটিসহ দুই জেলেকে অপহরণ করে নিয়ে যায় দস্যুরা। অপহৃত দুই জেলে হলেন খলিল মোল্লা (৩৫) ও মো. রাসেল (৩০)। তাঁদের বাড়ি পাথরঘাটা উপজেলার পদ্মা গ্রামে।
ট্রলারের মালিক আবদুর হালিম বলেন, ‘এমনিতেই নদীতে মাছ নেই। তার ওপর সামনে ঈদ। কী দিয়ে এসব জেলেকে মুক্ত করব চিন্তা করতে পারছি না।’
কোস্টগার্ডের পাথরঘাটা স্টেশনের কন্টিনজেন্ট কমান্ডার শামসুর রহমান গতকাল শনিবার দুপুরে বলেন, ‘জেলে অপহরণের ঘটনা কেউ জানায়নি। খোঁজ নিয়ে দেখব।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0