তিন শিশুসহ ছয় ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা মডেল থানা ও জেলা গোয়েন্দা পু​লিশ। গতকাল বুধবার বিকেল ও রাতে নারায়ণগঞ্জ এবং ঢাকা থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। পুলিশের দাবি, অবৈধ অস্ত্র থাকার অভিযোগে এই ছয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। গতকাল রাত সাড়ে ১০টার দিকে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে ফতুল্লা মডেল থানার সহকারী পুলিশ সুপার মো.শরফুদ্দিন এসব তথ্য জানান।

গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা হলেন আল আমিন(১০), শাকিল(১১), মো. জিশান(১১), ইমরান(১৯), বশির(২৫) ও মো. মাসুদ(২৮)।

পুলিশের তথ্যমতে, গ্রেপ্তার হওয়া ছয়জনের কাছ থেকে চারটি বিদেশি পিস্তল, সাতটি ম্যাগাজিন ও আটটি গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা অস্ত্র ব্যবসায়ের সঙ্গে জড়িত বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, গতকাল বিকেলে ফতুল্লা থানা প্রেসক্লাবের সভাপতি সৈয়দ ওবায়েদ উল্লাহর কাছে ইমরান, শাকিল ও আল আমিন অস্ত্র বিক্রির প্রস্তাব দিলে বিষয়টি তিনি পুলিশকে জানান। পুলিশ তাদের আটক করে। এ সময় তাদের সঙ্গে থাকা স্কুলব্যাগের ভেতর থেকে একটি পিস্তল ও পাঁচটি গুলি উদ্ধার করা হয়। পরে তাঁদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ফতুল্লা মডেল থানা ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশ রাজধানীর দক্ষিণ বাড্ডা এলাকা থেকে আরও তিনটি বিদেশী পিস্তল ও তিনটি গুলিসহ জিসান, মাসুদ ও বশিরকে আটক করে।

শরফুদ্দিনের ভাষ্য, নতুন কৌশল হিসেবে অস্ত্র ব্যবসায়ীরা শিশুদের ব্যবহার করছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চোখ এড়াতে স্কুলব্যাগে করে তারা অস্ত্র বহন করত। এ ঘটনায় রাতে ফতুল্লা থানায় একটি মামলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন