হাতিরঝিল প্রকল্পে জমি অধিগ্রহণের ক্ষেত্রে দুর্নীতির অভিযোগে জাতীয় পার্টির সাবেক এক সাংসদ, তাঁর স্ত্রী ও দুই সরকারি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দিতে যাচ্ছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।
গতকাল সোমবার এ-সংক্রান্ত অভিযোগপত্র অনুমোদন করেছে বলে জানিয়েছেন দুদকের উপরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য।
যাঁদের অভিযোগপত্র দেওয়া হচ্ছে তাঁরা হলেন সাবেক সাংসদ আবুল কাশেম, তাঁর স্ত্রী সুফিয়া কাশেম, জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের উপসচিব জ্ঞানেন্দ্র নাথ সরকার ও নির্বাচন কমিশনের অতিরিক্ত সচিব মোখলেসুর রহমান। দুদকের উপপরিচালক ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আবদুস সাত্তার শিগগিরই আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেবেন বলে জানা গেছে। ২০১৩ সালের ডিসেম্বর মাসে দুদক কর্মকর্তা যতন কুমার রায় এ অভিযোগে মামলা করেছিলেন।
অভিযোগে বলা হয়েছে, ২০০৬ সালে জ্ঞানেন্দ্র নাথ সরকার ঢাকার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও মোখলেসুর রহমান অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে সাবেক সাংসদ আবুল কাশেম ও তাঁর স্ত্রী সুফিয়া কাশেমের যোগসাজশে হাতিরঝিলের তেজকুনিপাড়া মৌজায় দশমিক ৬৫ একর জমি দেখিয়ে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ব্যবস্থা করেন। অথচ সেখানে তাঁদের কোনো জমি ছিল না।
এবি ব্যাংকের চার কর্মকর্তাসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা: ঋণ জালিয়াতির মাধ্যমে পৌনে চার কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে আরব-বাংলাদেশ ব্যাংকের (এবি ব্যাংক) চার জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুদক। গতকাল সোমবার দুদকের উপপরিচালক মীর মো. জয়নুল আবেদীন শিবলী মতিঝিল থানায় এ মামলা করেন।
যাঁদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে তাঁরা হলেন: সৈয়দ জহির উদ্দিন মোহাম্মদ মুজিব, আবু সালেহ মো. আবদুল মাজেদ, এ এল এম বদিউজ্জামান, ফারুক আহমেদ ভুঁইয়া এবং ওয়ান থ্রেড অ্যান্ড একসেসরিজ ইন্ডাস্ট্রিজের মালিক খন্দকার মেহমুদ আলম।

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন