ডিএনসির ঢাকা মহানগর উত্তর বিভাগের সহকারী কমিশনার মেহেদী হাসান প্রথম আলোকে বলেন, গ্রেপ্তার পাঁচজনের মধ্যে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকাসংলগ্ন পদ্মা ইন্টারন্যাশনাল নামে একটি আবাসিক হোটেলের মালিক ও কর্মচারী রয়েছেন। তাঁরা হোটেল ব্যবসার আড়ালে মাদকের কারবারে জড়িয়ে পড়েছেন।

মেহেদী হাসান বলেন, ইয়াবা ব্যবসায়ীরা মালিক রইস উদ্দিন ওরফে রবি ও ম্যানেজার আলম ওরফে রনির সহযোগিতায় হোটেলে বসেই ইয়াবা হাতবদল ও লেনদেন করতেন। তাঁদের দুজনকে ১৫০টি ইয়াবাসহ হোটেল থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাঁদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে খিলক্ষেতের নিকুঞ্জ-২ এলাকার একটি বাসা থেকে মাদক কারবারি হানিফ মোল্লাকে ১০ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার করা হয়।

এ চক্রের দুজন নারী সদস্যকে গ্রেপ্তারের কথা জানিয়ে মেহেদী হাসান বলেন, কাফরুল থেকে চক্রের সদস্য শাহিদা বেগমকে এক হাজার ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার করা হয়। আরেক নারী সদস্য রিমিয়ারা খাতুনকে ১৫০ ইয়াবাসহ ভাটারার ছোলমাইদ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন