default-image

মিয়ানমার থেকে ইয়াবার চালান পাচারকালে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যদের বাধার মুখে কাঠের নৌকাসহ ১ লাখ ২০ হাজার ইয়াবা ফেলে পালালেন পাচারকারীরা। পরে বিজিবির সদস্যরা ইয়াবার চালানটি জব্দ করেন। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার রাত নয়টার দিকে কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের লাফারঘোনা নাফ নদী এলাকা থেকে ইয়াবাগুলো উদ্ধার করা হয়। প্রথম আলোকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ ২-বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান।


বিজিবির লে. কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবির সদস্যরা সাবরাং ইউনিয়নের লাফারঘোনা পয়েন্টে অবস্থান নেন। কিছুক্ষণ পর কয়েকজন একটি নৌকা নিয়ে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশের ভেতরে ঢুকে পড়েন। তখন বিজিবির সদস্যরা তাদের চ্যালেঞ্জ করেন। এ সময় মাদক পাচারকারীরা নৌকা ফেলে কেওড়া বাগানের ভেতর দিয়ে পালিয়ে যান। এ কারণে কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তবে ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে দুটি ব্যাগ ও একটি কাঠের নৌকা জব্দ করা হয়। পরে ওই ব্যাগের ভেতর থেকে ৩ কোটি ৬০ লাখ টাকার মূল্যের ১ লাখ ২০ হাজার ইয়াবা পাওয়া যায়। ইয়াবাগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে। পরবর্তীতে এগুলো ধ্বংস করা হবে।

মন্তব্য পড়ুন 0