৩৭ লাখ টাকার জাল নোটসহ গ্রেপ্তার ১০ জন রিমান্ডে

বিজ্ঞাপন

৩৭ লাখ টাকার জাল নোটসহ ১০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত বুধবার ওই ১০ জনকে দুই দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দিয়েছেন।

আসামিরা হলেন মানিকগঞ্জের কালিনগর গ্রামের নাজমুল হোসেন নিজাম (৪০), চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জের তাজুল ইসলাম লিটন (৩৯), মানিকগঞ্জের জাগির দিঘুলিয়া গ্রামের জয়নাল আবেদীন (৩৫), মানিকগঞ্জের শরীফ (৩১), শারমিন আক্তার (২৫), পিরোজপুরের ফাতেমা বেগম (২৭), গোপালগঞ্জের জামির শিকদার (৪০), ফরিদপুরের গুহ লক্ষ্মীপুর গ্রামের মেহেদী হাসান পলাশ (৩২), রাজশাহীর দুর্গাপুরের জাহাঙ্গীর আলম (৪৫) এবং কুষ্টিয়ার কুমারখালীর রমিছুর রহমান সজল (৪৫)।

৩৭ লাখ টাকার জাল নোট উদ্ধারের ঘটনায় মঙ্গলবার ডিবির পরিদর্শক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন বাদী হয়ে রাজধানীর হাতিরঝিল থানায় মামলা করেন। মামলার এজাহারে বলা হয়, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টার সময় ঢাকা মহানগর এলাকায় বিশেষ অভিযান চালানোর সময় জানা যায়, হাতিরঝিল থানার পশ্চিম রামপুরার উলন রোডের মাহমুদাবাদ ভবনে জাল টাকার সরঞ্জাম নিয়ে কয়েকজন অবস্থান করছে। তখন সেখানে অভিযান চালিয়ে জাল টাকার নোটসহ আসামিদের গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় আসামি নাজমুল হোসেন জাল টাকা তৈরি করছিলেন। জাল টাকা তৈরিতে ব্যবহৃত একটি ল্যাপটপ, প্রিন্টার, ফয়েল পেপার, বান্ডিল কাগজসহ ৩৭ লাখ জাল টাকা জব্দ করা হয়।

জাল টাকাসহ গ্রেপ্তার ১০ আসামিকে ঢাকার আদালতে হাজির করে সাত দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে ডিবি পুলিশ। তদন্ত কর্মকর্তা এবং ডিবির অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও প্রতিরোধ টিমের পরিদর্শক এস এম গফফারুল আলম আদালতকে প্রতিবেদন দিয়ে জানান, জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন ধরে তাঁরা বাংলাদেশি জাল নোট তৈরি করে তা বাজারজাত করে আসছিলেন। এই জাল টাকা পলাতক আসামিদের সহযোগিতায় ঢাকাসহ বাইরের জেলায় বাজারজাত করা হচ্ছিল।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন