চার জেলায় বিএনপি, ছাত্রদল-যুবদল ও ছাত্রশিবিরের ১৮ নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত শনিবার থেকে গতকাল রোববার বিকেল পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।

নোয়াখালী: পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ২০ দলের ডাকা আজ সোমবারের হরতালকে ঘিরে নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে গতকাল সকাল নয়টার দিকে সেনবাগ বাজারের একটি দোকান থেকে পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফারুক বাবুল ও ছাত্রশিবিরের সেনবাগ কলেজ শাখার সাবেক সভাপতি আলাউদ্দিনকে গ্রেপ্তার করা হয়। বিকেল সাড়ে চারটার দিকে একই অভিযোগে উপজেলার ছাতারপাইয়া বাজার থেকে ছাতারপাইয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আবদুর রহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাঁকে সুধারাম (সদর) থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

এর প্রতিবাদে বিএনপি-শিবিরের একদল কর্মী বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পৌরসভার কাদরা ‘বোর্ড অফিস’ এলাকায় ব্যাটারিচালিত করাতের সাহায্যে সড়কের পাশের তিনটি গাছ কেটে সড়ক অবরোধ এবং সেখানে বিক্ষোভ করেন।

দুপুর ১২টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অবরোধকারীদের ধাওয়া করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ সময় পুলিশ শটগান থেকে পাঁচটি ফাঁকা গুলি ছোড়ে।

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মমিনুল হক গতকাল বিকেলে প্রথম আলোকে জানান, গ্রেপ্তার করা ওই তিন নেতার বিরুদ্ধে থানায় আগেই মামলা ছিল। এ ছাড়া সড়কের গাছ কাটার ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

ময়মনসিংহ: পুলিশের দায়ের করা একটি বিস্ফোরক মামলায় ময়মনসিংহে ছাত্রদলের পাঁচ নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত শনিবার রাতভর বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে শহরের বাগানবাড়ী এলাকা থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন জেলা ছাত্রদলের সাবেক প্রচার সম্পাদক ইবনে খালিদ, ছাত্রদলের কর্মী সাহানুর রহমান, শুভ, মো. ইনসান ও জাকিবুল্লাহ রাকিব।

নাজিরপুর (পিরোজপুর): গত শনিবার রাতে উপজেলার সাতকাছিমার গ্রামের বাড়ি থেকে উপজেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান খানকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

নাজিরপুর থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, উপজেলার কলাতলা গ্রামের যুবলীগ নেতা ইলিয়াস হত্যা মামলার সন্দেহভাজন আসামি হিসেবে মিজানুরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মুন্সিগঞ্জ: গত শনিবার রাত থেকে গতকাল পর্যন্ত বিএনপির নয়জন নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গ্রেপ্তার করা নেতা-কর্মীরা হলেন শ্রীনগর উপজেলা যুবদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক রাজু আহমেদ, পাটাভোগ ইউনিয়ন যুবদলের প্রচার সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান, কুকুটিয়া ইউনিয়ন যুবদলের সহসভাপতি শাহীন আহমেদ, শ্রীনগর থানা যুবদলের সদস্য জহিরুল ইসলাম ও টঙ্গিবাড়ী উপজেলার মো. রিপন এবং সিরাজদিখান উপজেলার ৮ নম্বর ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি আল মামুন, কোলা ইউনিয়নের শ্রমিক দলের সভাপতি হাবিব শেখ, সদর থানা বিএনপির কোষাধ্যক্ষ জজ মিয়া ও গজারিয়া উপজেলার বালুয়াকান্দি ইউনিয়ন যুবদলের সাধারণ সম্পাদক হালিম মোল্লা।

{প্রতিবেদনটি তৈরিতে সহযোগিতা দিয়েছেন নোয়াখালী অফিস, ময়মনসিংহ অফিস, মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) ও মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি}

বিজ্ঞাপন
অপরাধ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন