'গোলাগুলিতে' যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি নিহত

বিজ্ঞাপন
default-image

লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে মাইন উদ্দিন মানু (৪০) নামের একজন ‘গোলাগুলিতে’ নিহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার রাতে উপজেলার চরকদিরা ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার দক্ষিণ চরকাদিরা গ্রামের একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশের দাবি, মাইনের বাড়ি দক্ষিণ চরকাদিরা এলাকায়। তিনি আন্তজেলা ডাকাত দলের সদস্য ছিলেন। নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর ও ফেনীর বিভিন্ন থানায় তাঁর বিরুদ্ধে ডাকাতি ও অস্ত্র আইনে ছয়টি মামলা আছে। এর মধ্যে লক্ষ্মীপুর সদর থানায় ২০১১ সালে দায়ের করা একটি হত্যাসহ ডাকাতির মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত হয়ে দীর্ঘদিন ধরে তিনি পলাতক ছিলেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দেশে তৈরি একটি বন্দুক ও দুটি গুলি উদ্ধার করেছে।

কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইকবাল হোসেনের দাবি, গতকাল দিবাগত রাত দুটার দিকে উপজেলার দক্ষিণ চরকাদিরা গ্রামে মতলব মাঝির পরিত্যক্ত বাড়িতে আন্তজেলা ডাকাত দলের মাইন উদ্দিন মানু ও নেছার উদ্দিন গ্রুপের মধ্যে গোলাগুলি হয়। দলে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে অন্তঃকোন্দলের জেরে তাঁদের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। ওই সময় ডাকাতের দল রামগতি উপজেলার সীমান্তবর্তী চরকলাকোপা এলাকার দিকে পালিয়ে যায়। পরে মাইনকে ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। তাঁকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি জানান, গত রাতের ঘটনায় হত্যা ও অস্ত্র আইনে থানায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। নিহত মাইনের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন