প্রত্যক্ষদর্শী নাজির মোল্লা ও মনির হোসেন বলেন, আজ সকালে যাত্রী নিয়ে অটোরিকশাটি উপজেলার গোয়ালন্দ বাজার থেকে দৌলতদিয়া ঘাটের দিকে যাচ্ছিল। সকাল পৌনে ১০টার দিকে অটোরিকশাটি দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) কার্যালয়ের সামনে পৌঁছালে ফরিদপুরগামী পণ্যবাহী একটি ট্রাকের অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। পরে ট্রাকের চালক ওই অটোরিকশাকে কয়েক ফুট টেনে নিয়ে যায়। এভাবে কিছু দূর যাওয়ার পর ট্রাক ফেলে চালক দ্রুত সটকে পড়েন।

এ সময় স্থানীয় লোকজন অটোরিকশাচলককে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করেন। পরে তাঁরা অটোরিকশার আহত দুই যাত্রীকে উদ্ধার করে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। এর মধ্যে এক যাত্রী ওসমান মন্ডলের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়েছে।

default-image

এদিকে দুর্ঘটনার পর ট্রাকের চালক দৌড়ে পালিয়ে পাশের ফকিরপাড়া গ্রামের এক মসজিদে আশ্রয় নেন। স্থানীয় লোকজন খবর পেয়ে তাঁকে মসজিদ থেকে আটক করেন। পরে গোয়ালন্দ ঘাট থানা-পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ট্রাকচালককে আটক করে।

আহলাদীপুর হাইওয়ে থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. জিল্লুর রহমান বলেন, অটোরিকশার চালক ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনাকবলিত ট্রাক ও অটোরিকশাটি পুলিশি হেফাজতে আছে। লাশের পরিচয় শনাক্তের পাশাপাশি ময়নাতদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন