বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ বছর অনুষ্ঠিত মেডিকেল কলেজের ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন আলপনা। মেধাতালিকায় তাঁর অবস্থান ৬৭৫। সে অনুযায়ী ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে পড়ার সুযোগ পেয়েছেন।

আজ শুক্রবার বড়পলাশবাড়ি ইউনিয়নের ধারিয়া বেলসাড়া গ্রামে গিয়ে দেখা গেছে, মাটির গাঁথুনির ঘরের বারান্দায় পাতা চৌকির ওপর বসে আছেন আলপনা, ঝরনা ও আরেক কিশোরী। তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, আফতাবর রহমান ভ্যান নিয়ে বের হয়েছেন। কখন ফিরবেন ঠিক নেই।

আলপনার ভাষ্য, ‘স্কুল–কলেজের শিক্ষকেরা সহযোগিতা না করলে এমন সাফল্য সম্ভব হতো না। অভাবের সংসারে লেখাপড়ার খরচ নিয়ে দুশ্চিন্তা থাকলেও বাবা যখন আছেন, তখন তা নিয়ে ভাবছি না। বাবার প্রতি আস্থা আছে। তিনি ঠিকই ব্যবস্থা করে নেবেন।’

আলপনা জানালেন, ২০১৯ কুশলডাঙ্গী উচ্চবিদ্যালয় থেকে এসএসসি ও ২০২১ সালে ঠাকুরগাঁও সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েছেন। স্কুল থেকেই শিক্ষকেরা তাঁর বেতন ও টিউশন ফি নিতেন না। উপবৃত্তি আর বাবার কাছ থেকে পাওয়া টাকাতেই তাঁর লেখাপড়ার খরচ চলেছে।

আলপনার মা মাজেদা বেগম বলেন, ‘ভ্যান চালানোর আয়েই তিন ছেলেমেয়ের পড়ালেখার খরচ চলছে। ওরা বই–খাতা চাইলেই সেটার ব্যবস্থা করতে স্বামী ব্যস্ত হয়ে পড়েন। মেয়েকে ডাক্তারি পাস করাতে পারলে আমাদের জীবন ধন্য হয়ে যাবে।’

প্রতিবেশী হাজেরা বেগম নামের এক নারী বলেন, আশপাশের গ্রামে কখনো কেউ মেডিকেলে পড়ার সুযোগ পাননি। অভাবের মধ্যে বড় হওয়া একটা মেয়ে মেডিকেলে পড়ার সুযোগ পেয়ে গ্রামের মর্যাদাও বাড়িয়ে দিয়েছেন।

আফতাবর বাড়িতে ফিরে এলে মেয়ের মেডিকেলে ভর্তির খরচ নিয়ে তাঁর সঙ্গে কথা হয়। তিনি বলেন, ছেলে যখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পান, তখন আফতাবরের হাতে কোনো টাকাপয়সা ছিল না। তখন ২৫ শতক জমির মধ্যে ৫ শতক বিক্রি করে দেন। লেখাপড়ার খরচ দিতে গিয়ে বাকি জমিটুকুও শেষ হয়ে যায়।

আফতাবর বলেন, ‘ছেলের ভর্তির সময় যখন পেরেছি, মেয়ের ভর্তিও ঠেকে থাকবে না। ভর্তি ও লেখাপড়ার খরচ চালিয়ে নিতে পারব ঠিকই। এ নিয়ে ভাবছি না। তবে কেউ যদি বিনা শর্তে সহযোগিতা করতে চান, তাহলে তাঁকে ফিরিয়ে দেব না।’

কুশলডাঙ্গী উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইয়াসিন আলী বলেন, আলপনার বাবার অভাবের কথা কোনো দিন কাউকে মুখ খুলে বলতে শোনেননি। নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস আছে বলেই তিনি ভ্যান চালিয়েই ছেলেমেয়ের লেখাপড়া চালিয়ে যাচ্ছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন