বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ শনিবার সকালে ঝিনাইদহ র‌্যাব ক্যাম্পে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানান ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর মোহাম্মদ শরিফুল আহসান।

শরিফুল আহসান জানান, বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটির পণ্য ঘাটতির পরিমাণ সাত থেকে আট কোটি টাকা। কয়েক মাস ধরে আটক ব্যক্তিরা তাঁদের প্রতিষ্ঠানের গ্রাহক সেবাসহ সব কার্যক্রম বন্ধ রাখেন। এতে সারা দেশে অসংখ্য ক্রেতা হয়রানির শিকার হচ্ছেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটির এক হাজার আট শতাধিক ইনভয়েস অর্ডার বাকি আছে। গত শুক্রবার প্রতারণার শিকার আতিকুর রহমান নামের এক গ্রাহক চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় ১৮ লাখ ৫২ হাজার ৪৮০ টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

মামলার পর র‌্যাব-৬ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুয়াডাঙ্গা ও খুলনা থেকে ওই চারজনকে আটক করে। তাঁদের চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় হস্তান্তরের পর আতিকুর রহমানের করা অর্থ আত্মসাতের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন