বিজ্ঞাপন

বন্ধুসভার সহায়তার অর্থ পেয়েছেন জহির ব্যাপারী নামে একজন রিকশাচালক। থাকেন মাদারীপুর শহরের হরিকুমারিয়া এলাকায়। জহির বলেন, ‘রিকশা চালাইয়া কোনো রহমে পরিবার লইয়া বাঁইচা আছি। ঈদে এহন আর আমাগো আনন্দ নাই। পোলা মাইয়ার জামা অনেক কষ্টে কিনছি। ঈদের দিন এই টাহাডা পাইয়া মেলা উপহার হইল। ব্যাগ ভইরা ঈদের বাজার করতে পারুম।’

মাদারীপুর বন্ধুসভার সভাপতি সোহেল রানা বলেন, ‘দেশে করোনা পরিস্থিতির কারণে মানুষ নানা ধরনের সমস্যায় আছে। তাই আমাদের বন্ধুরা নিজ নিজ অবস্থান থেকে এবার অসহায় ৫০টি পরিবারের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে। ঈদে নিম্ন আয়ের মানুষের মুখে কিছুটা হাসি ফোটানোই ছিল আমাদের উদ্দেশ্য। আমরা চেষ্টা করেছি আমাদের চারপাশে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা মানুষজন যেন ঈদের দিন একটু ভালো খাবার কিনতে পারে বা ঈদের দিনটা যেন তাদের ভালো কাটে।’

ঈদ ছাড়াও করোনাকালে অসহায় মানুষের সহযোগিতায় ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রাখা হয়েছে বলে জানান মাদারীপুর বন্ধুসভার সদস্যরা।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন