default-image

বগুড়ার আদমদীঘিতে এক গৃহবধূর ‘অশ্লীল’ ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে টাকা দাবির অভিযোগে সোয়াইব হোসেন (২২) নামের এক তরুণকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার মুরইল বাজার থেকে সোয়াইবকে আটক করে আদমদীঘি থানার পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানান, সোয়াইব হোসেন আদমদীঘির কুন্দগ্রাম ইউপির বাগিচাপাড়া গ্রামের সাহাদত আলীর ছেলে। পাশের একটি গ্রামের এক সৌদিপ্রবাসীর স্ত্রীকে (২০) সোয়াইব নানাভাবে উত্ত্যক্ত করে আসছিলেন। গৃহবধূ বিষয়টি তাঁর পরিবারের সদস্যসহ স্বামীকে মুঠোফোনে জানান। একপর্যায়ে সোয়াইব তাঁর মুঠোফোন থেকে গৃহবধূর মুঠোফোনে ভিডিও কল দেন। সেখান থেকে কৌশলে গৃহবধূর ছবি সংগ্রহ করেন। এরপর সম্পাদনা করে গৃহবধূর মুখের সঙ্গে নগ্ন ছবি জুড়ে দিয়ে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে ৫০ হাজার টাকা দাবি করেন। গৃহবধূ স্বজনদের সঙ্গে আলাপ করে কৌশলে টাকা দেওয়ার কথা বলে সোয়াইবকে মুরইল বাজারে আসতে বলেন। বিষয়টি পুলিশকেও জানানো হয়।

শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে পুলিশ স্থানীয় কিছু লোকজন নিয়ে মুরইল বাজারে অপেক্ষা করতে থাকে। একপর্যায়ে সোয়াইব অটোরিকশা করে টাকা নেওয়ার জন্য আসেন। এরপর স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় পুলিশ তাঁকে হাতেনাতে আটক করে। এ সময় অটোরিকশাসহ চালক পালিয়ে যান।

আদমদীঘি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সানোয়ার হোসেন জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0