default-image

নরসিংদীর মনোহরদীতে কলাগাছ ধরে পুরোনো ব্রহ্মপুত্র নদ পারাপারের সময় পানিতে ডুবে বাবা ও ছেলে প্রাণ হারিয়েছেন। শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে মনোহরদীর শুকুন্দি ইউনিয়নের দীঘাকান্দি গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পানিতে ডুবে মারা যাওয়া দুজন হলেন মো. জাকারিয়া ফরাজী (৪৫) ও তাঁর ছেলে সাজিদ ফরাজী (৬)। তাঁদের বাড়ি মনোহরদীর সুকুন্দি ইউনিয়নের দীঘাকান্দি গ্রামে।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানান, পুরোনো ব্রহ্মপুত্র নদের এপারে দীঘাকান্দি গ্রাম আর ওপারের চরে বিস্তৃত ফসলের খেত। অন্যান্য দিনের মতো সাঁতার কেটে নদ পার হয়ে ওপারে খেতের পরিচর্যা করতে যাচ্ছিলেন মো. জাকারিয়া ফরাজী। শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে ছেলে সাজিদ ফরাজী বায়না ধরায় তাকেও একটি কলাগাছে উঠিয়ে নদ পার হচ্ছিলেন তিনি।

নদের মাঝামাঝি যাওয়ার পর হঠাৎ ছেলে সাজিদ হঠাৎ পানিতে পড়ে যায়। তাকে তুলে আনতে বাবা জাকারিয়া ফরাজীও নদের পানিতে ঝাঁপ দেন। পরে দুজনই পানিতে তলিয়ে যান। আশপাশের লোকজন নদের পানিতে নেমে তাদের উদ্ধার করে মনোহরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পরে ওই হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁদের দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

নদের পানিতে ডুবে বাবা-ছেলের মৃত্যুর ঘটনায় দীঘাকান্দি গ্রামে শোক বিরাজ করছে। অনেকেই শোকাহত পরিবারের সদস্যদের সান্ত্বনা দিতে তাঁদের বাড়িতে ভিড় করছেন।

মনোহরদী থানার উপপরিদর্শক মো. আমিনুল হক দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নদের পানিতে ডুবে মারা যাওয়া বাবা জাকারিয়া ও ছেলে সাজিদ ফরাজীর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন