বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আওয়ামী লীগের দলীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ৩০ জুলাই কুমিল্লা-৭ (চান্দিনা) আসনে আওয়ামী লীগ দলীয় সাংসদ মো. আলী আশরাফ মারা যান। শূন্য ওই আসনের জন্য ২ সেপ্টেম্বর নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব হুমায়ুন কবীর খোন্দকার তফসিল ঘোষণা দেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নের জন্য ৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সাতজন আবেদন ফরম জমা দেন। এর মধ্যে প্রাণ গোপাল দত্ত ও প্রয়াত সাংসদ আলী আশরাফের ছেলে চান্দিনা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুনতাকিম আশরাফ ছিলেন মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে। শেষ পর্যন্ত মনোনয়ন পেয়েছেন নাক, কান ও গলার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক প্রাণ গোপাল দত্ত। আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা সংসদীয় বোর্ডের সভায় সভাপতিত্ব করেন।

প্রাণ গোপাল দত্ত ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন থেকে নির্বাচনী মাঠে সক্রিয় ছিলেন।

দলীয় মনোনয়ন পাওয়া প্রসঙ্গে প্রাণ গোপাল দত্ত বলেন, ‘আওয়ামী লীগের জন্য নিবেদিতপ্রাণ ব্যক্তি হিসেবে দল আমাকে মূল্যায়ন করেছে। আমি প্রধানমন্ত্রী ও দলের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। চান্দিনায় দলের সবাইকে নিয়ে কাজ করব।’

রিটার্নিং কর্মকর্তা ও কুমিল্লার আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. দুলাল তালুকদার বলেন, কুমিল্লা-৭ (চান্দিনা) উপনির্বাচনে ১৩ সেপ্টেম্বরের মধ্যে মনোনয়নপত্র জমা, ১৪ সেপ্টেম্বর বাছাই, ১৯ সেপ্টেম্বর প্রত্যাহার ও ২০ সেপ্টেম্বর প্রতীক বরাদ্দ দেওয়ার নির্ধারিত দিন। ৭ অক্টোবর ইভিএমে এখানে ভোট হবে।

এই নির্বাচনে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট অংশ নিচ্ছে না। তবে জাতীয় পার্টি নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন