বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
হাওরের রাজনীতির বৈশিষ্ট্যে ভিন্নতা রয়েছে। সে কারণেই পুরোনোদের প্রাধান্য দিয়ে নতুনদেরও রাখা হয়। এককথায় কমিটি হয়েছে নতুন ও পুরোনোর সমন্বয়ে।
শহীদুল ইসলাম, সম্পাদক, আওয়ামী লীগ, অষ্টগ্রাম

প্রধান দুটি পদে পরিবর্তন না আসা ইউনিয়নগুলো হলো অষ্টগ্রাম সদর, পূর্ব অষ্টগ্রাম, কাস্তুল ও আদমপুর। অন্য চারটির মধ্যে দেওঘর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হয়েছেন আলতাফ হোসেন। তিনি আগের কমিটির সাধারণ সম্পাদক। সাধারণ সম্পাদক সুজন খান ছিলেন আগের কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

খৈয়রপুর-আবদুল্লাহপুর ইউনিয়নে সভাপতি পদে পরিবর্তন আনা হয়নি। এ পদে আছেন আ. রশিদ। তবে সাধারণ সম্পাদক পদে পরিবর্তন এসেছে। পদটি দেওয়া হয়েছে দলের কর্মী আশরাফুজ্জামানকে। তাঁর বাবা রাজা মিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন।

কলমা ইউনিয়নেও সভাপতি পদে আছেন আগের সভাপতি রবীন্দ্র চন্দ্র দাস। উপজেলা আওয়ামী লীগের কৃষি সম্পাদক আক্তার মিয়াকে দেওয়া হয়েছে সাধারণ সম্পাদক পদ।

বাঙ্গালপাড়া ইউনিয়নে দুই পদে নতুন মুখ এসেছে। সভাপতি হয়েছেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক ভূঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হক। নেতা-কর্মীদের কেউ কেউ বলছেন, নেতৃত্বে তারুণ্যকে অবহেলা করা হয়েছে। কেউবা এই কমিটিকে ঈদের আগে পুরোনো লঞ্চকে ধুয়েমুছে নতুন সাজে নদীতে নামিয়ে দেওয়ার সঙ্গে তুলনা করছেন।

মনিরুজ্জামান রুস্তম উপজেলার বাঙ্গালপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান। সম্মেলনের দিন সাধারণ সম্পাদক পদ পেতে তিনি আগ্রহ দেখান। তিনি বলেন, বাঙ্গালপাড়া ইউনিয়ন কমিটিতে পরীক্ষিত আওয়ামী পরিবারের সদস্যরা উপেক্ষিত হয়েছে। এই কমিটি মেনে নেওয়া যায় না।

অষ্টগ্রাম, মিঠামইন ও ইটনা নিয়ে সংসদীয় আসন কিশোরগঞ্জ-৪। এ আসনে স্বাধীনতাপূর্ব সময় থেকে রাষ্ট্রপতি হওয়ার আগ পর্যন্ত সংসদ সদস্য ছিলেন মো. আবদুল হামিদ। বর্তমানে টানা তিনবারের সংসদ সদস্য রাষ্ট্রপতির ছেলে রেজওয়ান আহাম্মদ। স্বাধীনতা–পরবর্তী সময় থেকে হাওরে আওয়ামী লীগের রাজনীতির এককভাবে নিয়ন্ত্রণ করছেন রাষ্ট্রপতির পরিবারের সদস্যরা।

অষ্টগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের রাজনীতি কয়েক বছর ধরে দুই ধারায় বিভক্ত। উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফজলুল হক হায়দারী ও সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম পৃথক ধারার নেতৃত্বে রয়েছেন। পুরোনোদের দিয়ে নতুন কমিটি করার কারণ জানতে কথা হয় শহীদুল ইসলামের সঙ্গে। তিনি বলেন, হাওরের রাজনীতির বৈশিষ্ট্যে ভিন্নতা রয়েছে। সে কারণেই পুরোনোদের প্রাধান্য দিয়ে নতুনদেরও রাখা হয়। এককথায় কমিটি হয়েছে নতুন ও পুরোনোর সমন্বয়ে। এই কমিটির মাধ্যমে দলের ভালো কিছু হবে বলে তাঁর বিশ্বাস। যাঁরা কমিটিতে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন, তাঁদের ইতিমধ্যে বিষয়টি চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছে।

এদিকে চার ইউনিয়নে স্বপদে বহাল নেতারা হলেন সদর ইউনিয়নের সভাপতি এস এম গিয়াস উদ্দিন, সম্পাদক জসিম উদ্দিন। পূর্ব অষ্টগ্রাম ইউনিয়নের সভাপতি কাছেদ মিয়া, সম্পাদক মনিরুল ইসলাম। কলমা ইউনিয়নের সভাপতি রবীন্দ্র চন্দ্র দাস, সম্পাদক আক্তার মিয়া। আদমপুর ইউনিয়নে সভাপতি ফজলুল করিম, সম্পাদক আবদুল মন্নাফ। কাস্তুল ইউনিয়নের সভাপতি আবদুর রহিম, সম্পাদক রুকন উদ্দিন ভূঁইয়া।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন