বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল দুপুরে আত্রাই উপজেলার সোনালী ব্যাংকের পাশে নিজ কার্যালয়ে বসে কাজ করছিলেন সরদার সোয়েব। এ সময় পাঁচ–ছয়জন দুর্বৃত্ত তাঁর কার্যালয়ে প্রবেশ করে কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। সোয়েবের চিৎকারে স্থানীয় ব্যক্তিরা এসে গুরুতর আহত অবস্থায় সোয়েবকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজে স্থানান্তর করে।
আত্রাই থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ জানান, আর্থিক ও রাজনৈতিক কারণে এই হামলার ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। হামলাকারীদের আটক করতে পুলিশের একাধিক দল মাঠে নেমেছে। তবে বিকেল পর্যন্ত পুলিশ কাউকে আটক করতে পারেনি। থানায় মামলার প্রস্তুত চলছে।

আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রোখসানা হ্যাপী প্রথম আলোকে বলেন, সরদার সোয়েবকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হাত ও পায়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করা হয়েছে। অবস্থা খারাপ হওয়ায় তাঁকে এখানে ভর্তি না করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দ্রুত পাঠানো হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন