default-image

বগুড়ার আদমদীঘিতে নিখোঁজের পর আদমদীঘি স্টেশনের পাশে ওমর আলী (২৮) নামের এক ব্যক্তির ট্রেনে কাটা লাশ উদ্ধার করেছে রেলওয়ে পুলিশ। নিহত ওমর আলী উপজেলার কুসুম্বী গ্রামের জামাল উদ্দিনের ছেলে। তিনি উপজেলার কুসুম্বী বাজারে মুঠোফোন বিক্রি ও রিচার্জের ব্যবসা করতেন। আজ বুধবার ভোরে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

আদমদীঘি রেলওয়ে স্টেশনমাস্টার মনোয়ারুল ইসলাম জানান, আজ ভোররাত চারটার দিকে ঢাকা থেকে লালমনিরহাটগামী লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনটি স্টেশন অতিক্রম করার পর রেলসেতুর পাশে ওই ব্যক্তি ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত হয়েছেন বলে জানতে পারেন তিনি। সকালে স্থানীয় লোকজন লাশ শনাক্ত করেন।

নিহত ব্যক্তির বাবা জামাল উদ্দিন বলেন, তাঁর ছেলে ওমর আলী গতকাল মঙ্গলবার রাত আটটার দিকে মুঠোফোন চার্জে দিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। সারা রাত বাড়ি না ফেরায় উৎকণ্ঠায় ছিলেন পরিবারের লোকজন। সকালে গ্রামের লোকজন জানান, ট্রেনে কাটা পড়ে ওমর আলী মারা গেছেন।

সান্তাহার রেলওয়ে থানার উপপরিদর্শক নজরুল ইসলাম জানান, আজ সকাল ১০টায় ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করার পর স্থানীয় ইউপির চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় সান্তাহার জিআরপি থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন