পাটাতন ফেটে ডুবল নৌকা, মা-শিশুর মৃত্যু

বিজ্ঞাপন

বগুড়ার আদমদীঘিতে নৌকা ডুবে মা ও ছেলের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার রক্তদহ বিলে নৌকার পাটাতন (তলা) ফেটে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নৌকার অন্য যাত্রীরা সাঁতরে কূলে উঠে প্রাণে রক্ষা পান।

মারা যাওয়া দুজন হলেন আদমদীঘি উপজেলার সান্দিড়া গ্রামের শহীদ হোসেনের স্ত্রী চাঁদনী বেগম (২৫) এবং এই দম্পতির শিশুসন্তান মো. সাদ (৫)।

প্রত্যক্ষদর্শী লোকজনের বরাত দিয়ে সান্তাহার ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) স্থানীয় ওয়ার্ডের সদস্য ফেরদৌস হোসেন বলেন, মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার সান্দিড়া গ্রামের প্রায় ২০ জন নৌকায় করে বিল পাড়ের করজবাড়ী গ্রামে যাচ্ছিলেন। নৌকাটি দুপুর ১২টার দিকে বিলের মাঝামাঝি স্থান কছিমনের দরগা এলাকায় পৌঁছায়। সেখানে নৌকার পাটাতন হঠাৎ ফেটে যায়। এতে যাত্রীসহ নৌকাটি বিলের পানিতে ডুবে যায়। এ সময় বেশির ভাগ যাত্রী সাঁতরে তীরে উঠতে সক্ষম হন। তবে চাঁদনী বেগম তাঁর শিশুসন্তান সাদকে নিয়ে বিলের পানিতে ডুবে নিখোঁজ হন। পরে তাঁদের উদ্ধার করে সান্তাহার শহরের একটি ক্লিনিকে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসক দুজনকেই মৃত ঘোষণা করেন।

আদমদীঘি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জালাল উদ্দীন বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। নৌকাডুবির কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন