বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মোল্লা মো. শাহীন আরও বলেন, ঘটনার দুই থেকে তিন ঘণ্টা পর হঠাৎ জমির খাঁ চিৎকার করে বলতে শুরু করেন তাঁর মাকে মেরে ফেলেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে প্রতিপক্ষের তিনজনকে আটক করে। তবে জমিরের কথাবার্তা সন্দেহজনক হওয়ায় পুলিশ রাতে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। তখন তিনি নিজেই হত্যা করেছেন বলে স্বীকার করেন। এ ঘটনায় রোববার রাতেই জমিরের বড় ভাই মামলা করেন। গতকাল বিকেলে জমিরকে আদালতে হাজির করা হয়।

আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, হামলা চালিয়ে বাড়ির সীমানা প্রাচীর ভাঙার ঘটনায় প্রতিপক্ষের তিনজনের বিরুদ্ধেও মামলা করেছেন নিহত ব্যক্তির বড় ছেলে জাহাঙ্গীর খাঁ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন