বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় সূত্র জানায়, মাসুম গতকাল রাত সাড়ে ১২টার দিকে দীপ্ত দত্ত নামের তাঁর এক বন্ধুর মোটরসাইকেলের পেছনে বসে উপজেলা সদর থেকে ইছামতী এলাকার দিকে যাচ্ছিলেন। পরে ইছামতী এলাকায় স্থানীয় লোকজন রাস্তায় একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মাসুমের লাশ উদ্ধার করে। এ সময় মাসুমের গলা, কোমর ও মাথায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এদিকে আজ রোববার সকালে আনোয়ারা থানায় গিয়ে দেখা যায় সেখানে শতাধিক মানুষ অবস্থান নিয়েছেন। মাসুমের মা–বাবা ও আত্মীয়ের আহাজারিতে সেখানকার পরিবেশ ভারী হয়ে উঠেছে। মাসুমের বাবা মো. ইউছুপ অভিযোগ করে জানান, পরিকল্পিতভাবে তাঁর ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে। তিনি এ ঘটনায় আইনি সহায়তার দাবি জানান।

ওসি এস এম দিদারুল ইসলাম সিকদার বলেন, লাশ গতকাল রাতে উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। এ ঘটনায় তদন্তের পাশাপাশি মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

আরেকটি লাশ উদ্ধার

আনোয়ারায় অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ বেলা সাড়ে ১১টায় উপজেলার পিএবি সড়কের বরুমচড়া রাস্তার মাথা এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার হওয়া ওই ব্যক্তির আনুমানিক বয়স ৪৫ বছর।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আজ সকালে সড়কের পাশে একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় লোকজন। পরে খবর পেয়ে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

আনোয়ারা থানার ওসি এস এম দিদারুল ইসলাম সিকদার বলেন, লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। লাশের পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন