default-image

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মাহমুদুল হক ভূঁইয়াসহ ১৪ নেতা-কর্মীকে দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে জেলা আওয়ামী লীগ। একই সঙ্গে তাঁদের স্থায়ীভাবে দল থেকে বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রে সুপারিশ পাঠানো হয়েছে। সোমবার দুপুরে স্থানীয় সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নেওয়ায় দলীয় নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য গতকাল রোববার সাংসদ মোকতাদির চৌধুরী ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার স্বাক্ষরিত একটি জরুরি চিঠি কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের কাছে পাঠানো হয়। চিঠিতে সাংগঠনিক শৃঙ্খলা রক্ষার বৃহত্তর প্রয়োজনে ১৪ নেতা-কর্মীকে সাংগঠনিক পদ ও প্রাথমিক সদস্যপদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের জন্য সুপারিশ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

চলতি মাসের ২৮ ফেব্রুয়ারি ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা নির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে দ্বিতীয়বারের মতো নৌকার মনোনয়ন পান বর্তমান মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নায়ার কবির। জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মাহমুদুল হক ভূঁইয়াও নৌকার মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন। কিন্তু কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ মেয়র পদে তাঁকে মনোনয়ন দেয়নি। ফলে নির্বাচনী মাঠে তিনি মেয়র পদে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এ বিষয়ে জানার জন্য একাধিকবার চেষ্টা করেও মুঠোফোনে বিদ্রোহী প্রার্থী মাহমুদুল হক ভূঁইয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। তবে সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোকতাদির চৌধুরী বলেন, তাঁরা দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছেন। তাই তাঁদের স্থানীয়ভাবে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। সাংগঠনিক পদ ও প্রাথমিক সদস্যপদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রে সুপারিশ করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন