বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ জনগণকে নির্যাতনকারী একটি রাজনৈতিক দলে পরিণত হয়েছে। আওয়ামী লীগকে ক্ষমা করা যায় না। যে আওয়ামী লীগ একসময় জনগণের অধিকারের জন্য আন্দোলন–সংগ্রাম ও যুদ্ধ করেছে, সেই আওয়ামী লীগ আজ পুরোপুরিভাবে গোটা দেশের জনগণকে শোষণকারী ও নির্যাতনকারী দলে পরিণত হয়েছে। আওয়ামী লীগের মূল শক্তি ছিল গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করা। কিন্তু সেই জায়গা থেকে সরে গিয়ে তারা অর্থ উর্পাজনকারী দুর্নীতিতে নিমজ্জিত রাজনৈতিক দলে পরিণত হয়েছে। জনগণের সুখ-দুঃখ, আশা-আকাঙ্ক্ষার সঙ্গে তাদের সম্পর্ক নেই।

তলেবান ইস্যু নিয়ে বিএনপির অবস্থান কী—এমন প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘তালেবান ইস্যুতে আমি খুব একটা কথা বলি না। এটা আফগানিস্তানের ব্যাপার। তাদের জনগণ যেভাবে চায়, সেভাবেই দেশ চলবে। তবে একটা বিষয়ে বলতে চাই, কোনো মৌলবাদ, জঙ্গিবাদ, উগ্রবাদ আমরা সমর্থন করি না। আমরা মনে করি, ফারইস্ট এশিয়া, এশিয়া, দক্ষিণ এশিয়াতে মৌলবাদ-জঙ্গিবাদ কখনো কল্যাণের জন্য আসবে না। আমরা আশা করব, আফগানিস্তানে যে সরকারই আসুক, তারা জনগণের আশা-আকাঙ্ক্ষা পূরণ করবে। মানুষের অধিকারকে মূল্যায়ন করবে। দেশের জনগণের জন্য কাজ করে যাবে।’

মির্জা ফখরুলের বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান, সহসভাপতি নূর করিম, আল মামুন আলম, সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবদুল হামিদসহ বিএনপির অন্যান্য অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন