default-image

আওয়ামী লীগ নেতা আসাদুজ্জামান ওরফে টিটু শরীফ হত্যা মামলায় ১৬ জনের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া প্রত্যেক আসামিকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। খুলনা দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. নজরুল ইসলাম হাওলাদার (জেলা ও দায়রা জজ) আজ রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ওই রায় দেন।

নিহত ব্যক্তি আসাদুজ্জামান গোপালগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন নড়াইলের নড়াগাতী থানা এলাকার সেন্টু চৌধুরী, পলাশ চৌধুরী, আবদুল্লাহ চৌধুরী, বক্কর চৌধুরী, সোহেল চৌধুরী, পলাশ খাঁ, তুহিন মোল্লা, সবুজ মোল্লা, মাসুদ মোল্লা, রফিকুল মোল্লা, নতুন চৌধুরী এবং বাগেরহাটের মোল্লাহাট থানা এলাকার শহিদুল শেখ, মশিউর চৌধুরী, অলিউল্লাহ চৌধুরী, তরিকুল সরদার ও জিহাদ চৌধুরী।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণী সূত্র জানায়, ২০১৮ সালের ১ জুলাই দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নড়াইলের নড়াগাতি থানার শিংগাতী গ্রামে রাস্তার ওপর আসামিরা আওয়ামী লীগ নেতা আসাদুজ্জামানকে কুপিয়ে হত্যা করেন। ওই মামলায় মোট ৩১ জন আসামি ছিলেন। এর মধ্যে ১৫ জনের বিরুদ্ধে হত্যাকাণ্ডে সংশ্লিষ্টতা না পাওয়ায় আদালত তাঁদের বেকসুর খালাস দেন।  

খুলনা দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মো. আহাদুজ্জামান বলেন, ওই মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের মধ্যে চারজন পলাতক রয়েছেন। মোট ৩৫ জনের মধ্যে ৩১ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আদালত ওই রায় দেন।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন